বন্দুকযুদ্ধ

ডিবি পুলিশের সঙ্গে ‘বন্দুকযুদ্ধে’ ২ মাদক ব্যবসায়ী নিহত হয়েছেন। এসময় ডিবির এক সহকারী উপ-পরিদর্শক (এএসআই) ও এক কনস্টেবল গুরুতর আহত হয়েছেন।

রবিবার (১২ জানুয়ারি) রাত দেড়টার দিকে দিনাজপুর সদর উপজেলার সীমান্তবর্তী গ্রাম রামসাগর তাজপুর সরকারপাড়ায় এ ঘটনা ঘটে।

মৃত ২ মাদক ব্যবসায়ী হলেন- সীমান্তবর্তী গ্রাম রামসাগর তাজপুর সরকারপাড়ার শীর্ষ মাদক ব্যবসায়ী আবুল কাশেম কাইশা (৩০) ও রহমত আলী (৩২)। তাদের বিরুদ্ধে দিনাজপুর কোতয়ালী থানায় ১৭-১৮টি মাদক মামলা রয়েছে।

আহত হয়েছেন গোয়েন্দা শাখা পুলিশের (ডিবি) সহকারী উপ-পরিদর্শক (এএসআই) নাহিদ হাসান ও কনস্টেবল মাহাবুব আলম গুরুতর আহত হয়। তাদের দিনাজপুর এম. আব্দুর রহিম মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

গোয়েন্দা শাখা পুলিশের (ডিবি) ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) এটিএম গোলাম রসুল জানান, গোপন সংবাদের ভিত্তিতে রাতে ডিবি পুলিশের একটি টহলদল রামসাগর তাজপুর সরকারপাড়ায় রাস্তার পাশে অবস্থান নেয়। এসময় ১০-১২ জনের মাদক ব্যবসায়ীদের একটি দল ভারত সীমান্ত থেকে বাংলাদেশে মাদক নিয়ে প্রবেশ করে।

এসময় তাদের থামতে বলে তারা ডিবি পুলিশকে লক্ষ্য করে গুলি ছোড়ে। এতে ডিবির এএসআই নাহিদ হাসান ও কনস্টেবল মাহাবুব আলম গুরুতর আহত হয়। পরে ডিবিও পাল্টা গুলি ছোড়ে করে।

এক পর্যায়ে মাদক ব্যবসায়ী পালিয়ে গেলে ঘটনাস্থল থেকে আবুল কাশেম কাইশাও রহমত আলীর মরদেহ উদ্ধার করা হয়। তাদের মরদেহ ময়নাতদন্তের জন্য দিনাজপুর এম. আব্দুর রহিম মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে।