ভোটগ্রহণের পর গণনা চলছে।

দ্বিতীয় ধাপে উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে ঠাকুরগাঁওয়ের পাঁচ উপজেলার মধ্যে আওয়ামী লীগের তিনজন ও স্বতন্ত্র প্রার্থী দুইজন বিজয়ী হয়েছেন।

সোমবার রাতে ঠাকুরগাঁও রিটার্নিং অফিসার নুর কুতুবুল আলম এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

ঠাকুরগাঁও সদর, হরিপুর ও পীরগঞ্জ উপজেলায় আওয়ামী লীগ এবং বালিয়াডাঙ্গী ও রাণীশংকৈল উপজেলায় স্বতন্ত্র প্রার্থীরা চেয়ারম্যান পদে জয়ী হয়েছেন।

সদর উপজেলায় আওয়ামী লীগের প্রার্থী অরুনাংশু দত্ত টিটো নৌকায় ১ লাখ ২৬ হাজার ১২৭ ভোট পেয়ে নির্বাচিত হয়েছেন। নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী ন্যাশনাল পিপলস পার্টির রাজিউল ইসলাম আম প্রতীকে পেয়েছেন ২ হাজার ৫৪২ ভোট।

বালিয়াডাঙ্গীতে স্বতন্ত্র প্রার্থী আলী আসলাম জুয়েল মোটর সাইকেলে ৩৬ হাজার ১৯৬ ভোট পেয়ে নির্বাচিত হয়েছেন। নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী স্বতন্ত্র প্রার্থী সফিফুল ইসলাম আনারসে পেয়েছেন ২৯ হাজার ৯৬৩ ভোট। আওয়ামী লীগের প্রার্থী আহসান হাবীব বুলবুল নৌকায় পেয়েছেন ২৯ হাজার ৪৯৬ ভোট।

রাণীশংকৈলে স্বতন্ত্র প্রার্থী শাহারিয়ার আজম মুন্না মোটর সাইকেলে ৫২ হাজার ৮৮২ ভোট পেয়ে চেয়ারম্যান পদে বিজয়ী হয়েছেন; তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী আওয়ামী লীগের সইদুল হক নৌকায় ৪০ হাজার ৭৪০ ভোট পেয়েছেন।

পীরগঞ্জে চেয়ারম্যান পদে আওয়ামী লীগের আখতারুল ইসলাম নৌকায় ৫৮ হাজার ৭২ ভোট পেয়ে জয়ী হয়েছেন। নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী স্বতন্ত্র প্রার্থী ইসাহাক আলী আনারসে পেয়েছেন ৩২ হাজার ৪৩৩ ভোট।

হরিপুরে চেয়ারম্যান পদে আওয়ামী লীগের জিয়াউল হাসান মুকুল নৌকায় ৩৫ হাজার ১৬ ভোট পেয়ে জয়ী হয়েছেন। নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী স্বতন্ত্র প্রার্থী একেএম শামীম ফেরদৌস টগর ঘোড়ায় পেয়েছেন ৩১ হাজার ৪০৯ ভোট।

রহিম উল আলম খোকন, ঠাকুরগাঁও