যেখানে টিকটিকির উপদ্রব বেশি, সেখানে ময়ূরের পালক রেখে দিলে টিকটিকি ধারে কাছেও ঘেঁষবে না। ছবি : সংগৃহীত

গ্রামের বাড়ি থেকে শহরের দালান, চিলেকোঠা থেকে বহুতল ভবন সবখানেই যেন টিকটিকির রাজত্ব। কোথায় নেই টিকটিকি? সরীসৃপ এই প্রাণীটি তেমন কোনো ক্ষতি না করলেও, এর দৈহিক গঠন ও রঙের জন্যে হয়তো অনেকের কাছেই এটা এক ধরণের আতঙ্ক তৈরি করে। আতঙ্কের মধ্যে প্রথমেই যে ভাবনা অনেকের মধ্যে কাজ করে সেটা হচ্ছে- হয়তো এই প্রাণীটি আমার গায়ে এসে পড়বে।

ঘরের আনাচে কানাচে, প্রায় সর্বত্র টিকটিকি অবাধ বিচরণ! আপাত দৃষ্টিতে এটিকে নিরীহ গোছের মনে হলেও টিকটিকি মারাত্মক বিষাক্ত। বাড়িকে টিকটিকি-মুক্ত করতে অনেকেই বাজারে উপলব্ধ একাধিক রাসায়নিক যুক্ত দামি স্প্রে ব্যবহার করে থাকেন। কিন্তু তা সত্ত্বেও বাড়ি থেকে টিকটিকির উপদ্রব চিরতরে বন্ধ করা যায় না। কিন্তু কিছু সহজ উপায়ে বাড়ি থেকে টিকটিকি তাড়াতে পারবেন। চলুন উপায়গুলো জেনে নেওয়া যাক।

১) জানালার কোনায় কোনায় বা ঘরের ভেন্টিলেটরে কয়েক কোয়া রসুন রেখে দিন। রসুনের গন্ধে টিকটিকি ধারের কাছেও ঘেঁষবে না।

২) গোলমরিচ বা শুকনো লঙ্কার গুঁড়ো ৩-৪ কাপ জলে ঘণ্টাখানেক ভিজিয়ে রাখুন। এর পর ওই গোলমরিচ বা শুকনো লঙ্কার গুঁড়ো মেশানো জল ঘরের কোনায় কোনায় স্প্রে করে দিন। টিকটিকি ওই এলাকা ছেড়ে পালাবে।

৩) ঘরের যেখানে টিকটিকির উপদ্রব বেশি, সেখানে ন্যাপথালিনের বল বা ন্যাপথালিন গুঁড়ো করে ছড়িয়ে দিন। ন্যাপথালিনের গন্ধে টিকটিকি পালাবে।

৪) ঘরের যে সমস্ত জায়গায় টিকটিকির উপদ্রব বেশি, সেখানে ডিমের খোসা রেখে দিন। ওই সমস্ত জায়গায় আর টিকটিকির দেখা মিলবে না।

৫) যেখানে টিকটিকির উপদ্রব বেশি, সেখানে ময়ূরের পালক রেখে দিলে টিকটিকি ধারে কাছেও ঘেঁষবে না।

৬) পেঁয়াজের গন্ধ টিকটিকি মোটেই সহ্য করতে পারে না। তাই কয়েক টুকরো পেঁয়াজ ঘরের যে সমস্ত জায়গায় টিকটিকির উপদ্রব বেশি, সেখানে রেখে দিন। টিকটিকি পালাবে।

আজকের পত্রিকা/কেএইচআর/এআরকে