ঈদের ছুটিতে বুথে টাকা নেই। ছবি: সংগৃহীত

বাংলাদেশ ব্যাংক ঈদুল ফিতরের ছুটিতে এটিএম বুথে পর্যাপ্ত টাকা রাখার নির্দেশ দিলেও ছুটি শুরুর দু’দিনের মাথায় অধিকাংশ ব্যাংকের বুথে গিয়ে টাকা তুলতে পারেননি গ্রাহকরা।

এক ব্যাংকের কার্ড নিয়ে অন্য ব্যাংকের বুথে গিয়েও মেশিন থেকে কোনো টাকা বের করতে পারেননি গ্রাহকরা। টাকা না পেয়ে গ্রাহকরা দুর্ভোগে পড়েছেন।

এটিএম বুথে টাকার সংকট তৈরি হয়েছে ঈদের দিন বিকেল থেকেই। এটিএম বুথে টাকা না থাকার বিষয়ে খোঁজ নিতে বৃহস্পতিবার (৬ জুন) সকালে গুলশান, বনানী, বারিধারা এলাকার কয়েকটি এটিএম বুথে গিয়ে নিরাপত্তাকর্মীদের কাছে টাকা আছে কিনা জানতে চাইলে কার্ড দিয়ে চেক করতে বলেন।

বনানীতে এনসিসি ব্যাংকের এটিএম বুথের নিরাপত্তাকর্মী বুথে যাওয়ার চেষ্টা করলেও তিনি জানিয়ে দেন ঈদের দিন বিকেল থেকে এই বুথে টাকা শেষ হয়ে গেছে।

এদিকে ঈদের ছুটি বৃহস্পতিবার শেষ হলেও গ্রাহকদের এটিএম বুথে টাকার সংকট কাটতে আরও দু’দিন লাগবে। ঈদের ছুটির পরেই শুক্র ও শনিবার সরকারি ছুটির কারণে ব্যাংকগুলো এটিএম বুথে কোনো টাকা দিতে পারবে না।

এদিকে এক ধরনের অঘোষিতভাবেই ওই সময় থেকে বন্ধ রয়েছে ডাচ-বাংলা ব্যাংকের এটিএম বুথ থেকে টাকা তোলা।

ডাচ-বাংলা ব্যাংকের এটিএম বুথ থেকে জালিয়াত চক্রের টাকা তোলার পর নিরাপত্তা বাড়িয়েছে অন্য ব্যাংকগুলোও। নিরাপত্তা বাড়ানো হলে বিগত সময়ে ঈদের ছুটিতে এটিএম বুথে পর্যাপ্ত টাকা রাখলেও এবার তা সীমিত আকারে হয়েছে। যেকারণে ঈদের ছুটি শেষ হওয়ার আগেই এটিএম বুথগুলোতে টাকার সংকট তৈরি হয়েছে।

এ বিষয়ে জানতে চাইলে ব্যাংক সংশ্লিষ্টরা বলছেন, জালিয়াত চক্রের কারণে সবাই নিরাপত্তা ব্যবস্থা জোরদার করেছে। তবে বুথে টাকার সংকট থাকার কথা নয়।

উল্লেখ্য, ঈদের দুদিন আগে ডাচবাংলা ব্যাংক এর বুথ থেকে অভিনব কায়দায় জালিয়াতি করে তিন লক্ষ টাকা উঠিয়ে ধরা পরে ইউক্রেনের ছয়জন নাগরিক। অত্যাধুনিক পদ্ধতিতে তারা এই জালিয়াতি করে।

আজকের পত্রিকা/এমইউ/এআরকে