বাবা মায়ের সাথে বাধন।

ভাইরাস জ্বরে আক্রান্ত হয়ে মাত্র চারদিনের ব্যবধানে মৃত্যু হয়েছে ফরিদপুর প্রেসক্লাবের সিনিয়র সদস্য সাংবাদিক বেলাল চৌধুরীর মেয়ে রুকাইয়া চৌধুরী বাঁধনের (৩১)।

রোববার সকাল সাড়ে ৭টার দিকে ফরিদপুর ডায়বেটিক হাসপাতালে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাঁকে মৃত ঘোষনা করেন। আজ রোববার বাদ আসর ঝিলটুলী চৌরঙ্গি জামে মসজিদে জানাযা শেষে তাকে আলিপুর গোরস্থানে দাফন করা হয়। বাঁধনের মৃত্যুতে ফরিদপুরের সাংবাদিক মহলে শোকের ছায়া নেমে আসে।

জানা গেছে, গত চারদিন আগে বাঁধন জ্বরে আক্রান্ত হলে তাকে ফরিদপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের এক অধ্যাপকের প্রাইভেট চেম্বারে তাকে দেখানো হয়। এরপর চিকিৎসকের পরামর্শ অনুযায়ী জ্বরের ওষুধ সেবন করছিলো সে। গত শনিবার মধ্য রাত হতে তার শারিরীক অবস্থার অবনতি হতে থাকে। কোমড়ে প্রচন্ড ব্যাথা ও বমি ভাব হচ্ছিলো। সকালে তাকে উন্নত চিকিৎসার জন্য ডায়বেটিক হাসপাতালে আনা হয়েছিলো। ফরিদপুর মেডিকেল কলেজের অধ্যক্ষ ডা. খবিরুল ইসলাম জানান, এসব জ্বরে কোন কোন রোগী কিডনির বিকল হয়ে যায়।

সাংবাদিক বেলাল চৌধুরীর বড় মেয়ে রুকাইয়া চৌধুরী বাঁধন সরকারী রাজেন্দ্র কলেজ হতে ব্যবস্থাপনা বিষয়ে ¯œাতকোত্তর সম্পন্ন করেছিলো। শহরের ঝিলটুলী নিবাসী খন্দকার সাইফুর রহমান সজিবের সাথে কয়েক বছর আগে বিয়ে হয়। ফারিয়া খন্দকার নামে ৩ বছরের একটি মেয়ে সন্তান রয়েছে তাদের।

রুকাইয়া চৌধুরী বাঁধনের মৃত্যুতে ফরিদপুর প্রেসক্লাবের সভাপতি ইমতিয়াজ হাসান রুবেল সহ কর্মরত সাংবাদিকগণ গভীর শোক প্রকাশ করেছেন। তারা বাঁধনের রুহের মাগফিরাত কামনা ও শোকসন্তপ্ত পরিবারের প্রতি সমবেদনা জানান।

ইয়াকুব আলী তুহিন/ফরিদপুর