জৈন্তারাজ্যের ঐতিহাসিক পরির্দশনে মেঘালয় রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী

ভারতের মেঘালয় রাজ্যের মুখ্য মন্ত্রী কনরেড কে সাংমা মঙ্গলবার জৈন্তাপুর উপজেলায় জৈন্তা রাজ্যের ঐতিহাসিক স্থান সমুহ পরিদর্শন করেন। এ সময় মুখ্যমন্ত্রীর সাথে ২৫ সদস্যের একটি প্রতিনিধি দল ছিলেন।

বিকেল সাড়ে তিনটায় তামাবিল বর্ডার হয়ে বাংলাদেশে প্রবেশ করে চারটায় মুখ্যমন্ত্রী জৈন্তায় এসে উপস্থিত হোন। এ সময় তাঁকে স্বাগত জানান উপজেলা চেয়ারম্যান কামাল আহমদ, উপজেলা নির্বাহী অফিসার মৌরীন করিম। মুখ্যমন্ত্রীকে স্থানীয় আদিবাসী খাসিয়া সম্প্রদায়ের ছোট ছোট শিশুরা ফুল দিয়ে শুভেচ্ছা জানান।

এ সময় তিনি বলেন জৈন্তাপুরের সাথে আমাদের ইতিহাস ঐতিহ্য ও সংস্কৃতির অনেক মিল রয়েছে। জৈন্তাপুর এর ঐতিহাসিক এ সকল স্মৃতি রক্ষার জন্য তিনি বাংলাদেশের প্রধান মন্ত্রীকে অনুরোধ জানাবেন। ২০১০ সালে তাঁর পিতা পি,এ সাংমার জৈন্তাপুর সফর এর কথা স্মরণ করে তিনি বলেন বাংলাদেশের এই এলাকার সাথে আমাদের ঐতিহাসিক সম্পর্ক রয়েছে।আমরা যৌথভাবে এই এলাকার সম্পর্ক উন্নয়নে কাজ করতে চাই।

পরিদর্শন কালে উপস্থিত ছিলেন মেঘালয়ের শিল্প ও বানিজ্য মন্ত্রী স্নিওরা বানাং ধর, শিক্ষা মন্ত্রী লাকমেন রম্বাই, কৃষি মন্ত্রী বান্টেইডর লাংডো, ভারতীয় হাই কমিশন সিলেট অফিসের সহকারী হাই কমিশনার এল কৃষ্ণ মুর্তি সহ পচিশ জনের প্রতিনিধি দলের সদস্, জৈন্তাপুর উপজেলা চেয়ারম্যান কামাল আহমদ, নির্বাহী কর্মকর্তা মৌরীন করিম, জৈন্তাপুর মডেল থানার অফিসার ইনচার্জ শ্যামল বণিক, প্রেসক্লাবের সভাপতি শাহেদ আহমদ, প্রেসক্লাবের সাধারণ সম্পাদক নুরুল ইসলাম, স্যেভ দ্যা হেরিটেজ এন্ড এনভায়রনমেন্ট এর সভাপতি আব্দুল হাই আল হাদী।

নাজমুল ইসলাম/জৈন্তাপুর