বন ও জলবায়ু পরিবর্তন মন্ত্রী মো. শাহাব উদ্দিন। ছবি: সংগৃহীত

দেশের পরিবেশ ও বনজ সম্পদ সুরক্ষায় কার্যকর ভূমিকা রাখার জন্য জেলা প্রশাসকদের প্রতি আহ্বান জানিয়েছেন পরিবেশ, বন ও জলবায়ু পরিবর্তন মন্ত্রী মো. শাহাব উদ্দিন। ১৪ জুলাই বিকেলে মন্ত্রী পরিষদ বিভাগের সভাকক্ষে জেলা প্রশাসক সম্মেলনে পরিবেশ মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত অধিবেশনে বক্তব্য প্রদানকালে এ আহ্বান জানান তিনি।

মন্ত্রী বলেন, ‘জেলা পর্যায়ে যেকোনো আইনের কার্যকর প্রয়োগের জন্য জেলা প্রশাসকদের ভূমিকা অপরিসীম। মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার বলিষ্ঠ নির্দেশনা ও নেতৃত্বে দেশের পরিবেশ ও বনজ সম্পদ রক্ষা এবং বৃক্ষাচ্ছাদিত এলাকার পরিমাণ বাড়াতে নিরলসভাবে কাজ করছে পরিবেশ মন্ত্রণালয়।’

যে সকল জেলায় সংরক্ষিত বন ঘোষণার প্রক্রিয়া সম্পন্ন হয়নি সে সমস্ত জেলায় দ্রুততার সাথে তা সম্পন্ন করার জন্য নির্দেশনা দেন মন্ত্রী।

বনভূমির মধ্যে বিভিন্ন উন্নয়ন প্রকল্প গ্রহণ বা বাস্তবায়নের পূর্বে বন বিভাগের মাধ্যমে পরিবেশ, বন ও জলবায়ু পরিবর্তন মন্ত্রণালয়ের পূর্বানুমতি গ্রহণের সিদ্ধান্ত রয়েছে। এ বিষয়ে জেলা প্রশাসকদের সতর্ক থাকার পরামর্শ দেন তিনি।

মন্ত্রী আরও বলেন, ‘বনের দুই কিলোমিটার এলাকায় ইট প্রস্তুত ও ভাটা স্থাপন করা আইন সম্মত নয়। বনাঞ্চলের সন্নিকটবর্তী ইটভাটা বন্ধ এবং ইটের ভাটায় জ্বালানি কাঠের ব্যবহার বন্ধের বিষয়ে সহযোগিতার জন্য জেলা প্রশাসকদের অনুরোধ জানান মন্ত্রী।

সেন্টমার্টিন, টাঙ্গুয়ার হাওড় এলাকায় পরিবেশ ও ইকো-সিস্টেমের প্রতি খেয়াল রাখার জন্য সংশ্লিষ্ট জেলা প্রশাসকদের নির্দেশ প্রদান করেন মন্ত্রী।

উপকূলীয় এলাকায় বনায়নের মাধ্যমে এলাকার জনগণের জীবন ও সম্পদ রক্ষায় অত্যন্ত কার্যকরী পদক্ষেপ গ্রহণ করা এবং উপকূলের জেগে ওঠা চরে চিংড়ি চাষ কিংবা অন্য কোনো কাজে ব্যবহারের জন্য বন্দোবস্ত প্রদান না করার বিষয়ে জেলা প্রশাসকের নিয়ন্ত্রধীন ১ নং খতিয়ানের বন শ্রেনিভূক্ত জমি লীজ/বন্দোবস্ত না দেয়ার জন্যও জেলা প্রশাসকদের অনুরোধ জানান।