রাশি দেখে মিলিয়ে নিন, আপনি কেমন মানুষ। ছবি: সংগৃহীত

পৃথিবীতে ভিন্ন ভিন্ন চেহারা, বৈশিষ্ট্য ও কাঠামোর মানুষ রয়েছে। বাহ্যিক গড়ন, আচরণ, চিন্তা, আদর্শ এবং কথা বার্তায় মানুষে মানুষে অজস্র বৈচিত্র! এত বৈচিত্র্যের মানুষের মধ্যে রয়েছে কত মিল-অমিল। মিলের সংখ্যা যদি বেশিও হয় তবু প্রতিটি মানুষই স্বতন্ত্র। আর এই বৈশিষ্ট্যই অন্যান্য প্রাণীর থেকে আলাদা করে। কিন্তু মানুষকে স্বতন্ত্র ভাবে চেনা সম্ভব না। তাই মানুষের জন্মের সময়ের উপর ভিত্তি করা এদের আলাদা করা হয় যাতে মানুষকে চিনতে সুবিধা হয়। এত এত বৈচিত্রকে এক ছাতার নিচে নিয়ে এসে প্রত্যেককে আলাদা করে চিনিয়ে দেওয়ার একটা সহজ উপায় হলো রাশি।     

মেষ (২১ মার্চ – ২০ এপ্রিল)

রাশি চক্রের প্রথম রাশি মেষ। এই রাশির ব্যক্তি খুব তেজস্বী ও নির্ভীক হয়ে থাকে। রোমাঞ্চ ও সাহসিকতার কাজ করতে পারলে খুব আনন্দিত হয়। এরা খুব স্বতঃস্ফূর্ত স্বভাবের হওয়ায় সহজেই আপনার বন্ধু হয়ে যেতে পারে। পরিবারের সদস্যদের প্রতি খুব গুরুত্ব দেয় এবং গুরুজনদের ভক্তি, শ্রদ্ধা করে। এরা খুব উদার এবং দানশীলতার হলেও প্রয়োজনের সময়ের খুব কঠিন ব্যক্তিত্ব প্রদর্শন করতে দ্বিধাবোধ করে না। নিজেকে বড় করে দেখবার চেষ্টা এদের খুব বেশি। এরা সব বিষয়ে বড় হতে ও নেতৃত্ব করতে চায়। মেষ রাশির জাতক জাতিকাদের রাগ খুব বিধ্বংসী হতে পারে। এরা রেগে গেলে আপনাকে পস্তাতে হবে।

বৃষ (২১ এপ্রিল – ২১ মে)

রাশি চক্রের দ্বিতীয় রাশি বৃষ। এই রাশির অধিকর্তা গ্রহ শুক্র। এই রাশির ধারকদের বিপদে স্মরণ করতে পারেন। আপনার বন্ধু যদি হয় বৃষ রাশির তবে দ্রুত তার শরনাপন্ন হোন। এই রাশির ব্যক্তিরা সুন্দরের পূজারী ও খুব শিল্পরসিক হয়ে থাকে। এরা সহজেই বিপরীত লিঙ্গের মনকে জয় করতে পারে। বৃষ রাশির মানুষ যখন কোনো কিছু অর্জন করার প্রয়াস দেখায় তখন জীবন দিয়ে লড়াই করতে থাকে। আপনি যদি হোন তাদের বিপক্ষের কেউ তবে কঠিন প্রতিযোগিতার জন্য প্রস্তুত হয়ে নিন। তবে কাজ না থাকলে খুব অলস জীবন যাপন করতেই পছন্দ করে এরা। সারাদিন ঘুমিয়ে ঘুমিয়ে সময় কাটিয়ে দিতে পারে। এদের জীবনের উন্নতির পথে প্রধান বাঁধা হচ্ছে বিলাসিতা এবং অর্থের অপচয় করা।

মিথুন (২২ মে ২১ জুন)

রাশি চক্রের তৃতীয় রাশি মিথুন। এই রাশির অধিকর্তা গ্রহ বুধ। একটু অস্থির প্রকৃতির হলেও বন্ধুরা তাদের দুঃখের, সুখের গল্পগুলি সানন্দে বলে যেতে পারে মিথুন রাশির মানুষের কাছে। মনোযোগী শ্রোতা হিসেবে এদের সুনাম আছে। আবার বিপরীত অবস্থাও এই মানুষগুলোর মধ্যে দেখা যায়। এরা একইসাথে খুব চিন্তাশীল ও বাচাল হতে পারে। বেমালুম সবকিছু ভুলে যাওয়ার স্বভাব আছে এদের। তাই মিথুন রাশির মানুষকে কোনো কাজ দিলে তাকে বারবার মনে করিয়ে দিন। এই ধরণের মানুষদের সহজেই পটানো যায়। এরা খুব তোষামোদ প্রিয় হয়। আবার কোনো পছন্দের কাজ পেলে মিথুন রাশির ধারকরা কাজ পাগল হয়ে যায়।

কর্কট (২২ জুন ২২ জুলাই) 

রাশিচক্রের চতুর্থ রাশি কর্কট। এই রাশির অধিকর্তা গ্রহ চন্দ্র। এরা খুব শৈল্পিক মানসিকতা ধারণ করে। আপনার বন্ধু ও পরিচিত মহলে যদি কেউ একটু পাগলাটে স্বভাবের হয়ে থাকে, গান বাজনা করে, ছবি আঁকে কিংবা কবিতা লিখে তার রাশি কর্কট হবার সম্ভাবনা বেশি। এরা একটু চঞ্চল প্রকৃতির হয়। ভ্রমণ করতে ভালোবাসে। সারাক্ষণ হুড়োহুড়ির মধ্যে থাকায় এদের শরীর স্বাস্থ্য খুব একটা ভালো হয় না। এরা রাশিচক্রের সবচেয়ে রোমান্টিক রাশি। প্রিয়জনদের প্রতি খুব যত্নশীল হয়ে থাকে।

সিংহ (২৩ জুলাই – ২৩ আগস্ট) 

রাশি চক্রের পঞ্চম রাশি সিংহ। এই রাশির অধিকর্তা গ্রহ রবি। এরা দেখতে খুব সুন্দর হয়ে থাকে। কথা বলতে খুব ভালোবাসে। যখন তখন মন খারাপ করা এদের বৈশিষ্ট্য। আচরণে রয়েছে  কিছুটা শিশুসুলভ ভাব। তবে শান্ত স্বভাবের হলেও রেগে গেলে হিতাহিত জ্ঞানশূন্য হয়ে পড়ে। সিংহ রাশির ধারকরা যদি কোনো কাজে একবার মনস্থির করে তবে সেটাতে পারদর্শী হয়ে ওঠে। সময় বুঝে এরা জেদি এবং গম্ভীর হয়ে ওঠতে পারে।

কন্যা (২৪ আগস্ট ২৩ সেপ্টেম্বর)

রাশি চক্রের ষষ্ঠ রাশি কন্যা। এই রাশির অধিকর্তা গ্রহ বুধ। এরা সিদ্ধান্ত নিলে খুব অটল থাকে। খুব জেদি প্রকৃতির হওয়ায় একবার রাগ করলে সহজে কেউ স্বাভাবিক করতে পারে না। এরা ঝুঁকি নিতেও খুব ওস্তাদ। জীবনকে নিয়ে খেলতেই যেন খুব ভালোবাসে এরা। আদতে জীবন তো একটা খেলাই। এরা সকলের জন্য চিন্তা করে তবে নিজের স্বার্থ ভাল বোঝে।

তুলা (২৪ সেপ্টেম্বর ২৩ অক্টোবর)

রাশি চক্রের সপ্তম রাশি তুলা। এই রাশির অধিকর্তা গ্রহ শুক্র। প্রথম দেখাতেই ভালো লাগার মতো মানুষ এরা। এরা খুব ভাবপ্রবণ ও অসাধারণ প্রেমিক হয়ে থাকে। এরা খুব সৌন্দর্য ও ভোগবিলাস প্রিয় হয়ে থাকে। ঝামেলা এড়ানো এবং ঝামেলা তৈরি করা দুটোতেই এরা বেশ দক্ষ হয়ে থাকে। সাধারণত খেলাধুলা পছন্দ করে। জীবনের যে কোন পরিস্থিতিতে তুলা রাশির বন্ধু যথেষ্ট উপকারী। এদের মধ্যে কেউ গায়ক, শিল্পী, চিত্রকর, সুরকার, সাহিত্যিক হয়ে থাকে। এজন্যই সম্ভবত এরা খুব নির্জনতাপ্রিয় হয়।

বৃশ্চিক (২৪ অক্টোবর ২২ নভেম্বর)

রাশি চক্রের অষ্টম রাশি বৃশ্চিক। এই রাশির অধিকর্তা গ্রহ মঙ্গল। এরা তেজস্বী, স্বাধীনচেতা এবং নির্ভীক হয়ে থাকে। এরা কখনো আলোচনা, সমালোচনা ও বিতর্ককে ভয় করে না। নতুন নতুন অভিজ্ঞতা পছন্দ করে। যারা প্রকৃত মানুষ নয় তাদেরকে বৃশ্চিক রাশির ধারকরা ঘৃণা করে। তারা সবসময় তাদের জীবনকে একটি শেলের মধ্যে আবদ্ধ রাখে এবং তা কারো সাথে শেয়ার করতে চায় না। কেউ যদি এই শেলের ভেতর প্রবেশ করতে পারে তবে বৃশ্চিক রাশিকে খুব বিশ্বাস এবং স্নেহযোগ্য মনে হয়।

ধনু (২৩ নভেম্বর ২১ ডিসেম্বর)

রাশি চক্রের নবম রাশি ধনু। এই রাশির অধিকর্তা গ্রহ বৃহস্পতি। এরা খুব পরোপকারী, দায়িত্ববান ও আদর্শবাদী হয়ে থাকে। ব্যক্তিত্বসম্পন্ন হওয়ায় এরা সহজে অন্যের আধিপত্য নিতে পারে না।  খুব নির্জনতাপ্রিয় মানুষ এরা এবং আত্মগোপন করে রাখতে পছন্দ করে। এই রাশির মানুষ বন্ধুহীন জীবন কাটিয়ে দিতে পারে। খুব সহজে মেজাজ খারাপ করে ফেলতে পারে। ধনু রাশির মানুষের মেজাজ খারাপ হয়েছে বুঝতে পারলে তাকে ঘাটানো উচিত না। এদের কারও প্রতি গভীর মমতা তৈরি হলেও সেটা সহজে প্রকাশ করে না।

মকর (২২ ডিসেম্বর ২০ জানুয়ারি)

রাশি চক্রের দশম রাশি মকর। এই রাশির অধিকর্তা গ্রহ শনি। এরা একটু অলস প্রকৃতির। রান্না করতে ভালোবাসে। কাউকে ভালো লাগলে তার জন্যে নিজেকে উজাড় করে দেওয়ার মানসিকতা রাখে। তবে মকর রাশির মানুষ খুব দুঃখপ্রেমী ও নিঃসঙ্গপ্রিয় হয়। খুব ধৈর্যশীল হওয়ায় এদের উপর দীর্ঘ সময়কালীন কাজের চাপ বেশি থাকে। কোনো এক অজানা কারণেই বোধহয় বন্ধুরা এদেরকে এড়িয়ে চলতে চায়। তবে এদের কন্যা, বৃষ, কর্কট, মকর রাশির মানুষের সঙ্গে বন্ধুত্ব বা বিবাহ সুখের হয়।

কুম্ভ (২১ জানুয়ারি ১৮ ফেব্রুয়ারি)

রাশি চক্রের একাদশ রাশি কুম্ভ। এই রাশির অধিকর্তা গ্রহ শনি। একটু অগোছালো প্রকৃতির হলেও বেশ দায়িত্ববান এরা। এদের থেকে যতটুকু আশা করবেন তার থেকেও বেশি কিছু দেয়ার চেষ্টা করবে। এই রাশির জাতকরা একা থাকতে ভালোবাসে। জীবনের প্রথম ধাপে খুব কষ্ট করলেও পরবর্তীতে সুখী হয়। অন্যায়ের বিরুদ্ধে রুখে দাঁড়াতে পারে এরা। খুব কোমল স্বভাবের হলেও পরিস্থিতি খারাপ থাকলে এরা নিষ্ঠুর প্রকৃতির হয়ে থাকে।

মীন (ফেব্রুয়ারি ১৯- মার্চ ২০)

রাশিচক্রের দ্বাদশ রাশি মীন রাশি। অন্যদের মনোযোগের কেন্দ্রবিন্দু হয়ে থাকতে খুব পছন্দ করে এরা। অপরকে বিশ্বাস করতে খুব পছন্দ করে। তবে আস্থা ভেঙ্গে যাবার ফলে সহজেই খুব কষ্ট পায়। যেকোনো পরিস্থিতিতে সঠিক কাজটি করতে চেষ্টা করে এরা। অবশ্য এই কারণে অনেক সময় অন্যদের থেকে পিছিয়ে যায়। মীন রাশির মানুষ বন্ধু হলে আপনি খুব ভাগ্যবান। কিন্তু মীন রাশির জাতকদের বন্ধু নির্বাচনে নির্বাচনে সতর্ক হওয়া উচিত। কারন অনেকেই এদের বন্ধুত্বের সুযোগ নেবার চেষ্টা করেন।