জাহাঙ্গীর নগর বিশ্ববিদ্যালয়।

জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ের আবাসিক হলসহ জনবহুল গুরুত্বপূর্ণ স্থানে বেড়েই চলেছে চুরি এমনকি ছিনতাইয়ের মতো ঘটনাও।

শিক্ষার্থীদের সাইকেল, মোটরসাইকেল, মোবাইল, মানিব্যাগ চুরি হচ্ছে প্রতিনিয়ত। নেই কোন সুষ্ঠু তদন্ত কিংবা সাইকেল বা মোটরসাইকের পার্কিংয়ের জন্য নিরাপদ জায়গা। যার কারণে ক্যাম্পাসের অভ্যন্তরে নিয়মিতই চুরি হচ্ছে।

এমন পরিস্থিতিতে নিরাপত্তাহীনতায় ভুগছেন শিক্ষক-শিক্ষার্থীসহ ক্যাম্পাস সংশ্লিষ্টরা।

গত রবিবার (৮-৯-১৯) বিশ্ববিদ্যালয়ের মীর মশাররফ হোসেন হলের নিচতলার সিঁড়ির নিচ থেক একটি ১৫০ সিসির সুজুকি জিকসার মোটরসাইকেল চুরি হয়।

মোটরসাইকেলটির মালিক উক্ত হলের আবাসিক শিক্ষার্থী এবং ইংরেজি বিভাগের ৪৫ ব্যাচের ছাত্র গোলাম রাব্বি।

এ বিষয়ে তার সাথে কথা বলে জানা যায়, তিনি শনিবার রাত সাড়ে দশটার দিকে মোটরসাইকেলটি উক্ত স্থানে তালা মেরে ঢাকাতে আত্মীয় বাড়ি বেড়াতে যান। পরের দিন দিন সকাল ১০ টার দিকে তিনি ফিরে এসে দেখেন সেখানে মোটর সাইকেল নেই।
ইতোমধ্যে সাভার মডেল থানাতে তিনি অভিযোগ করেছেন বলেও জানা যায়।

এ বিষয়ে মীর মশাররফ হোসেন হলের ছাত্রলীগ নেতা এবং জাবি শাখা ছাত্রলীগের সহ-সম্পাদক শামিন ইয়াসির শাফিন বলেন,” প্রতিনিয়ত চুরি বেড়েই চলেছে। প্রশাসনের উচিত শিক্ষার্থীদের নিরাপত্তার বিষয়টি গুরুত্বের সাথে দেখা। ”

ভারপ্রাপ্ত প্রক্টর আ.স.ম. ফিরোজ-উল-হাসান বলেন,” চুরির বিষয়গুলো তদারকির জন্য এবং অভ্যন্তরীণ নিরাপত্তা বাড়ানোর জন্য হল প্রশাসনকে দায়িত্ব দেয়া হয়েছে। পাশাপাশি ছাত্রদেরকেও সতর্ক থাকতে হবে। যদি চুরির সাথে জড়িত কাউকে পাওয়া যায় তার বিরুদ্ধে যথাযথ ব্যবস্থা নেয়া হবে।”

এছাড়াও, ক্যাম্পাসে ডেইরী গেইট সংলগ্ন এলাকাতেও প্রায়ই সাইকেল চুরির অভিযোগও করে থাকেন শিক্ষার্থীরা।

-ইমন/জাবি