প্রাচীন মিশরীয়দের কাছে জলপাই পাতা গুরুত্বপূর্ণ ছিল। ছবি: সংগৃহীত

প্রাচীন মিশরীয়দের কাছে জলপাই পাতা এত গুরুত্বপূর্ণ ছিল যে তারা এটি স্বর্গীয় শক্তির প্রতীক হিসাবে গণ্য করেছিল। এই বৃক্ষটি এত গুরুত্বপূর্ণ ছিল যে বাইবেলে “জীবন বৃক্ষ” হিসাবে উল্লেখ করা হয়েছে। ১৮৮০ দশকে দ্রুত ম্যালেরিয়া প্রতিরোধের জন্য এটি ব্যবহার করা হত এবং তারপরে ১৯০০ দশকের প্রথম দিকে বিজ্ঞানীরা “অলিওরোপিন” নামে একটি তিক্ত যৌগকে আবিস্কার করেছিলেন, যা বিভিন্ন রোগ প্রতিরোধের ঔষধ। তাই ১৯০০ দশকে অলিওরোপিনের মাধ্যমে প্রাণীদের রক্তচাপ কমতে, করোনারি ধমনীতে রক্ত ​​প্রবাহ বাড়াতে, অ্যারিথমিমিয়া উপশম করতে ব্যবহার করা হতো।

এই পাতার উপকারিতা

রক্তচাপ

জলপাই পাতার মধ্যে আছে অলিওরোপিন, যা উচ্চ রক্তচাপকে নিন্ত্রন করতে পারে। ছবি: সংগৃহীত

জলপাই পাতার মধ্যে আছে অলিওরোপিন, যা উচ্চ রক্তচাপকে নিন্ত্রন করতে পারে। জলপাই পাতার ১০০০ মিলিগ্রাম রস রক্তচাপের ১১ এমএমএইচজি সিস্টোলিক থেকে ৪ এমএমএইচজি সিস্টোলিকে কমিয়ে আনতে পারে। এর অন্তঃস্রোতীয় কোষগুলি রক্ত ​​প্রবাহ ও চাপ বজায় রাখার ক্ষেত্রে একটি গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করে।

ডায়বেটিস

এই পাতাটির নির্যাসে ইনসুলিনের পরিমাণ বেশি। ছবি: সংগৃহীত

জলপাই পাতা ডায়াবেটিসের জন্য প্রাকৃতিক বিকল্প সরবরাহ করতে পারে বলে প্রমাণ আছে। অকল্যান্ড বিশ্ববিদ্যালয়ের গবেষকরা আবিষ্কার করেছেন যে, এই পাতাটির নির্যাসে ইনসুলিনের পরিমাণ বেশি, যা ডায়বেটিক রোগীদের ঔষধের মতো কাজ করে।

এন্টি ফাঙ্গাল, এন্টি ব্যাকটেরিয়াল

জলপাই পাতা চামড়া, চুল এবং নখের ব্যাকটেরিয়া হত্যা করতে সহায়ক। ছবি: সংগৃহীত

এন্টি মাইক্রোবায়াল ইফেক্ট ড. মার্কিন এট আল দ্বারা ২০০৩ সালের গবেষণায় পরীক্ষা করা হয়েছিল। গবেষকরা দেখেছেন যে জলপাই পাতা চামড়া, চুল এবং নখের ব্যাকটেরিয়া হত্যা করতে সহায়ক।

হাড়ের গঠন

জলপাই পাতার অলিওরোপিন হাড় ক্ষয়ের সঙ্গে লড়াই করে। ছবি: সংগৃহীত

স্পেনের কর্ডোবা বিশ্ববিদ্যালয়ের বিজ্ঞানী দ্বারা সঞ্চালিত গবেষণাতে হাড়ের স্টেম কোষে অস্টিওব্লাস্টস (হাড়ের একটি কোষ) গঠনের উপর অলিওরোপিনের প্রভাব সম্পর্কে গবেষণা করেছে। গবেষকরা উপসংহারে বলেন, “আমাদের তথ্য থেকে বোঝা যায় যে, জলপাই পাতার অলিওরোপিন হাড় ক্ষয়ের সঙ্গে লড়াই করে, হাড় তৈরিকারী কোষকে উদ্দীপ্ত করে এবং অস্টিওপরোসিস প্রতিরোধ করতে পারে।“

ক্যানসার প্রতিরোধ করে

জলপাইয়ের পাতার রস স্তন ক্যানসার প্রতিরোধে সাহায্য করে। ছবি: সংগৃহীত

জলপাইয়ের পাতার রস স্তন ক্যানসার প্রতিরোধে সাহায্য করে। এটি ক্যানসার তৈরিকারী কোষ বৃদ্ধিতে বাধা দেয়। এ ছাড়া টিউমারের বৃদ্ধিও কমিয়ে দেয়।

আজকের পত্রিকা/রিয়া/এমএইচএস