গণপিটুনির শিকার নারী

কুষ্টিয়ার দৌলতপুরে জামাই বাড়ি বেড়াতে আসা হাসিনা খাতুন (৬০) নামের এক মানসিক ভারসাম্যহীন নারীকে ছেলেধরা সন্দেহে পিটিয়েছে এলাকাবাসী।

সোমবার সকালে উপজেলার থানা পাড়ায় এ ঘটনা ঘটেছে। ওই নারীর বাড়ি ময়মনসিংহ জেলায়।

দৌলতপুর থানা পাড়ায় বাড়ি ওই নারীর জামাই রনি জানান, গত রমজানের ঈদের আগে আমার শ্বাশুড়ি বেড়াতে আসে। তার মাথায় সমস্যা আছে। রাস্তা-ঘাট ঠিকমত চিনতে পারে না। আজ সকালে বাড়ি থেকে বের হয়ে বাইরে এসে পথ ভুলে যায়। এরপর স্থানীয়রা ছেলে ধরা সন্দেহে তাকে মারপিট করেছে।

দৌলতপুর থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) আজম খান বলেন, জামাই বাড়ি বেড়াতে আসা এক মানসিক প্রতিবন্ধী নারীকে পিটিয়ে আহত করে স্থানীয় কয়েকজন বখাটে। তাকে উদ্ধার করে চিকিৎসা দিয়ে জামাইয়ের বাড়ি পাঠানো হয়েছে। ইতিমধ্যে কয়েকজনকে চিহিৃত করা হয়েছে। মামলার পর ঘটনার সাথে জড়িতদের আইনের আওতায় নিয়ে আসা হবে।

আজকের পত্রিকা/এমএআরএস