কৃষক বেশে গোলাম রাব্বানী।

ধান কাটাতে শ্রমিক না পাওয়ায় বিপাকে আছে কৃষক। আর এসব কৃষকদের পাশে দাঁড়ানোর প্রত্যয় ব্যক্ত করেছিল ছাত্রলীগ। ঢাকার কাছেই সাভারে এক কৃষকের ধান কেটে দিয়েছেন ছাত্রলীগের নেতাকর্মীরা।

২২ মে বুধবার রাজধানীর অদূরে আমিনবাজার এলাকায় শুক্কুর আলী নামের এক কৃষকের ক্ষেতে ধান কাটায় নেতৃত্ব দিয়েছেন ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক এবং ডাকসুর জিএস গোলাম রাব্বানী।

সেই ধানকাটার দৃশ্য গোলাম রাব্বানী নিজের ফেসবুক অ্যাকাউন্টে আপলোড করেন। ইতিমধ্যে সেই ছবি ভাইরাল হয়েছে। অচেনা রূপে এ ছাত্রনেতাকে দেখে অনেকে অনেক ধরনের মন্তব্য করেন।

এর আগে মঙ্গলবার এক বিজ্ঞপ্তিতে ছাত্রলীগের কেন্দ্রীয় সভাপতি রেজওয়ানুল হক চৌধুরী শোভন ও সাধারণ সম্পাদক গোলাম রাব্বানী স্বাক্ষরিত সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে নেতাকর্মীদের কৃষকের ধান কেটে দেওয়ার আহ্বান জানান হয়।

ধানের ন্যায্য দাম না পাওয়ায় দেশের অনেক জায়গার কৃষক ধান কাটছেন না। কিছু জায়গায় ধানে আগুন দেওয়ার ঘটনাও ঘটছে। এ অবস্থায় কৃষকের পাশে দাঁড়াচ্ছে বিভিন্ন প্রতিষ্ঠানের শিক্ষার্থীরা। তারা কৃষকের ধান কেটে দিচ্ছেন। সেই ধারাবাহিকতায় এবার মৌসুমের প্রায় শেষ দিকে এসে কৃষকের ক্ষেতের ধান কেটে দেয়ার ঘোষণা দেয় শেখ হাসিনার ভ্যানগার্ড বাংলাদেশ ছাত্রলীগ।

এদিকে কৃষকের পাশে দাঁড়ানোর ঘোষণা দেওয়ার পরদিনই ধান কাটার এ কর্মসূচিতে অংশ নেন খোদ ছাত্রলীগ সাধারণ সম্পাদক। এদিন তিনি অংশ নেন ধবধবে সাদা লুঙ্গি, হাতাকাটা গেঞ্জি, কোমরে লাল গামছা, মাথাল মাথায় পরে। তার এক হাতে ছিল ধানের ছড়া ও অন্য হাতে কাস্তে। হাস্যোজ্জ্বল গোলাম রাব্বানীর ছবি ২২ মে বুধবারের পর থেকেই ভাইরাল হয় ফেসবুকে।

ধানকাটার দৃশ্য গোলাম রাব্বানী নিজের ফেসবুক অ্যাকাউন্টে আপলোড করেন ২২ মে বুধবার। তিনি ছবিটি কভার ফটো হিসেবে যুক্ত করেন। এ রিপোর্ট লেখা পর্যন্ত ছবিতে লাইক পড়েছে ২৫ হাজার, কমেন্ট পড়েছে দুই হাজার নয় শ। শেয়ার হয়ছে সাড়ে পাঁচ শ’র বেশি।

মন্তব্যের ঘরে গোলাম রাব্বানীসহ বাংলাদেশ ছাত্রলীগের ভূয়সী প্রশংসা জমা পড়েছে। সাইফুল ইসলাম ভূঁইয়া লিখেছেন, ‘দরিদ্র কৃষকদের ধান কেটে দিচ্ছেন বাংলাদেশ ছাত্রলীগের বিপ্লবী সাধারণ সম্পাদক দেশরত্ন শেখ হাসিনার স্নেহের ছাত্রনেতা ইতিবাচক ছাত্ররাজনীতির প্রমিথিউস গোলাম রাব্বানী ভাই।’

আরিফ মাহমুদ লিখেছেন, ‘তৃণমূলের দ্বারপ্রান্তে এসে কৃষকের মুখে হাসি ফোটানোর দায়িত্ববোধ আপনাকে দেখে আরও জাগ্রত হবে সোনার বাংলাদেশ আমার।’

ফয়সাল কবির লিখেছেন, ‘অসহায় কৃষকের পাশে বাংলাদেশ ছাত্রলীগ।’ অনেকেই লিখেছেন, ‘কৃষক বাঁচলে, বাঁচবে দেশ শেখ হাসিনার বাংলাদেশ।’

একজন লিখেছেন, ‘সুট বুট পরা ছাত্রলীগের বেহাল দশা আজ কাটিয়ে উঠেছে, আজ বঙ্গবন্ধুর ছাত্রলীগের প্রতিফলন হয়েছে।’

তবে শুধু প্রশংসাই নয়, সমালোচনামূলক ও নেতিবাচক মন্তব্যও পড়েছে বেশ কিছু।

আজকের পত্রিকা/এমএআরএস