রাজৈর থানা।

মাদারীপুরের রাজৈর উপজেলার বাজিতপুর ইউনিয়নের চেয়ারম্যানের তৃতীয় স্ত্রীর সাথে পরকীয়ার জের ধরে সোহেল হাওলাদার নামের এক ক্ষুদ্র ব্যবসায়ী যুবককে কুপিয়ে হত্যার ঘটনা ঘটেছে।

পুলিশ, স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, ৯ মে বৃহস্পতিবার রাতে বাজিতপুরের মজুমদার বাজার ব্রীজের কাছে সোহেল হাওলাদারকে (২৮) একা পেয়ে কুপিয়ে আহত করা হয়।গুরুতর আহত অবস্থায় তাকে প্রথমে রাজৈর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ও পরে ফরিদপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নেয়ার পথে সোহেলের মৃত্যু হয়।

বাজিতপুর ইউনিয়নের চেয়ারম্যান সিরাজুল ইসলাম হাওলাদারের স্ত্রীর সাথে সোহেলের পরকীয়া প্রেমের অভিযোগ ছিল। এই ঘটনায় স্থানীয়ভাবে কয়েক দফা সালিস বৈঠক হলেও বিষয়টি সুরাহা হয়নি।

এদিকে নিহতের পরিবারের অভিযোগ, বৃহস্পতিবার রাতে মজুমদার বাজার ব্রীজের কাছে সোহেলকে একা পেয়ে ইউপি চেয়ারম্যান সিরাজুল ইসলাম হাওলাদার তার লোকজন নিয়ে এলোপাথারি কুপিয়ে আহত করে। পরে ফরিদপুর নেয়ার পথে সোহেল মারা যান।

রাজৈর থানা।

মাদারীপুরের পুলিশ সুপার সুব্রত কুমার হালদার জানান, বাজিতপুরের ইউপি চেয়ারম্যান সিরাজুল ইসলাম হাওলাদারের তৃতীয় স্ত্রীর সাথে সোহেল হাওলাদারের বিবাহ বহির্ভূত সম্পর্ক বা পরকীয়ার অভিযোগে চেয়ারম্যান ও তার ভাগিনা অন্যান্য লোকজন নিয়ে ওই ছেলেটিকে ব্যাপক মারপিট করে।

খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে যাওয়ার আগেই হামলাকারীরা পালিয়ে যায়। আসামিদের গ্রেফতারে পুলিশের অভিযান অব্যাহত আছে। দ্রুত তাদের গ্রেফতার করে যথযথ আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

জহিরুল ইসলাম/মাদারীপুর