আহত ইউপি চেয়ারম্যান

শরীয়তপুরের চন্দ্রপুর ইউপি চেয়ারম্যান ওমর ফারুক মোল্লা স্থানীয় প্রতিপক্ষের হামলায় গুরুতর আহত হয়ে মাদারীপুর সদর হাসপাতালে ভর্তি হয়েছেন।

এছাড়াও তার দুই ছেলে সাগর ও শাওনকেও ধারালো অস্ত্র দিয়ে কুপিয়ে গুরুতর আহত করা হয়।

আহত ইউপি চেয়ারম্যান ও ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক ওমর ফারুক মোল্লার অভিযোগ, স্থানীয় প্রভাব বিস্তার নিয়ে যুবলীগের সহ-সভাপতি রিপন সরদার তার সমর্থকদের নিয়ে বিভিন্ন সময় মানুষজনকে মারধর করে আসছিল।

২১ মে মঙ্গলবার সকালে কীর্তিনগর সেতু এলাকায় রিপন সরদার লোকজন নিয়ে তার ছেলে সাগরকে মারধর করে গুরুতর আহত করে।

খবর পেয়ে ছেলেকে উদ্ধার করতে গেলে স্থানীয় কোব্বাস হাওলাদার, তোতা সরদার, মামুন মল্লিক, রহিম মাদবরসহ অন্যরা সংঘবদ্ধভাবে হামলা করে ওমর ফারুক মোল্লা ও তার অপর ছেলে শাওনকেও গুরুতর আহত করে।

পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে। পরে আহতদের উদ্ধার করে মাদারীপুর সদর হাসাপাতালে ভর্তি করা হয়।

জহিরুল ইসলাম/মাদারীপুর