আটক মাদক বিক্রেতা আমির ও ইসমাইল

র‌্যাব-৬ এর সিপিসি-২ ঝিনাইদহর সদস্যরা পৃথক ৩ টি অভিযান চালিয়ে ৩০১ বোতল ফেন্সিডিল ও প্রায় ৪ কেজি গাঁজাসহ ৫ জন মাদক ব্যবসায়িকে আটক করতে সক্ষম হয়েছে। বুধবার বিকেল সাড়ে ৫ টা থেকে রাত ১১ টা পর্যন্ত র‌্যাব সদস্যরা পৃথক পৃথক অভিযান চালিয়ে চুয়াডাঙ্গার দর্শনা, ঝিনাইদহের বড়াই গ্রাম ও আলমপুর বাজার এলাকা থেকে আসামীসহ মাদকের এসব চালান আটক করে।

আটককৃতরা হলো, মাদক ব্যবসায়ী মেহেদী হাসান (২৩), ইসমাইল হোসেন (৪০), আমির (৪২ ও আব্দুল আলীম (৩৫)।

আটক মাদক বিক্রেতা অহিদুল

র‌্যাব সূত্রে জানা যায়, গোপন সংবাদের ভিত্তিত্বে র‌্যাব-৬ এর সিপিসি-২ ঝিনাইদহর কোম্পানী কমান্ডার অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মোঃ মাসুদ আলম এবং স্কোয়াড কমান্ডার এএসপি মোঃ বজলুর রশীদ এর নেতৃত্বে র‌্যাব সদস্যরা পৃথক অভিযান চালিয়ে চুয়াডাঙ্গার দামুড়হুদা উপজেলার দর্শনা পৌর এলাকার পরানপুর গ্রাম থেকে ওই গ্রামের আঃ জলিলের ছেলে মাদক ব্যবসায়ী মোঃ মেহেদী হাসানকে ৩০১ বোতল ফেন্সিডিল সহ গ্রেফতার করেন।

অপরদিকে, রাত ১১ টার দিকে ঝিনাইদহ জেলার মহেশপুর থানাধীন ব্রীজমাঠ আলামপুর বাজার থেকে ২ কেজি গাঁজাসহ যশোর জেলার চৌগাছা উপাজেলার বড় খানপুর গ্রামের অহিদুল সরদার আব্দুল আলীম আটক করে।

উদ্ধার হওয়া ফেনসিডিল

এছাড়া, ঝিনাইদহ জেলা শহরের মুচিপাড়া কাঁচা রাস্তার উপর থেকে ১ কেজি ৭০০ গ্রাম গাঁজাসহ হাসন হাটি গ্রামের মৃত বাবর আলীর ছেলে আমির (৪২), এবং বহালগাছি গ্রামের মতলেব মন্ডল ছেলে ইসমাইল হোসেনকে র‌্যাব সদস্যরা আটক করে।

আটক মাদক বিক্রেতা মেহেদি হাসান

র‌্যাব-৬ এর সিপিসি-২ ঝিনাইদহ’র কোম্পানী কমান্ডার অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মোঃ মাসুদ আলম ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত হরে জানান, পরবর্তীতে গ্রেফতারকৃত আসামীদেরকে বুধবার রাত পৌনে ১২ টার দিকে ২০১৮ সালের মাদক দ্রব্য নিয়ন্ত্রন আইনে মামলা দিয়ে সংশ্লিষ্ট থানায় হস্তান্তর করা হয়েছে।

শামসুজ্জোহা পলাশ/চুয়াডাঙ্গা