মোহাম্মাদ মানিক হোসেন, চিরিরবন্দর :
দিনাজপুরের চিরিরবন্দরে করোনাভাইরাস সংক্রমণের লক্ষণ নিয়ে মারা যাওয়া ঢাকা ফেরত গার্মেস শ্রমিক মোছা: আক্তারিনা খাতুন (২৯) নমুনা পরীক্ষার প্রতিবেদন ‘পজিটিভ’ এসেছে।

মঙ্গলবার রাতে চিরিরবন্দরে তাঁরসহ চারজনের শরীরে করোনাভাইরাসের সংক্রমণ শনাক্ত হয়েছে।

এ নিয়ে উপজেলায় কোভিড–১৯ রোগীর সংখ্যা দাঁড়াল ১৬ জনে।

জানাগেছে, ওই নারী ঢাকা শ্রীপুর এলাকার একজন গার্মেস শ্রমিক ছিলেন ।

দীর্ঘদিন যাবত তিনি জ্বর সর্দি, কাশিতে ভুগছিলেন এ অবস্থায় তিনি গত ৩০ মে শুক্রবার দুপুরে ঢাকা থেকে বাড়িতে ফিরেই অসুস্থ হয়ে পড়েন ।

পরে তাকে করোনার উপসর্গ নিয়ে দিনাজপুর এম.আব্দুর রহিম মেডিকেল হাসপাতালের ভর্তি করা হলে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তিনি মারা যান।

তার নমুনা সংগ্রহ করে পিসিআর ল্যাবে পাঠানো হয়। আক্তারিনা চিরিরবন্দর উপজেলার ইসবপুর ইউনিয়নের ডাঙ্গাপাড়ার মাহবুবুর রহমানের স্ত্রী বলে জানা গেছে।

উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডা. আজমল হক জানান, ঢাকা থেকে ফেরত এসেই গার্মেস শ্রমিক ওই নারী অসুস্থ হয়ে পড়লে তিনি নিজেই করোনা উপসর্গ থাকায় দিনাজপুর এম.আব্দুর রহিম মেডিকেল হাসপাতালে ভর্তি হলে তিনি চিকিৎসাধীন অবস্থায় মৃত্যুবরণ করেন।

পরে তার নমুনা সংগ্রহ করা হলে পরিক্ষার পর তার রির্পোটে করোনা পজেটিভ আসে।

  • 185
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
    185
    Shares