চিত্রশিল্পী এসএম সুলতান

বরেণ্য চিত্রশিল্পী এসএম সুলতানের পঁচিশতম মৃত্যুবার্ষিকী আজ। চিরায়ত বাংলার প্রতিচ্ছবি যার তুলির আঁচড়ে ফুটে উঠেছে তিনি এস এম সুলতান। বাংলার কৃষক, জেলে, তাঁতি, কামার, কুমার তথা খেটে খাওয়া মানুষই তার শিল্পকর্মের উপজীব্য বিষয়। তাঁর চিত্রকর্ম সংরক্ষণে নিজ বাড়িতে প্রতিষ্ঠিত হয় সুলতান স্মৃতিসংগ্রহশালা।

এসএম সুলতানই প্রথম এশীয় শিল্পী, যার আঁকা ছবি প্রদর্শিত হয়েছে পাবলো পিকাসো, সালভাদর দালির মতো বিশ্বখ্যাত শিল্পীদের চিত্রকর্মের সাথে। কিংবদন্তি এই শিল্পী খ্যাতি ছড়িয়েছেন বিশ্বময়। পেয়েছেন একুশে পদক, স্বাধীনতা পদক, ক্যামব্রিজ বিশ্ববিদ্যালয়ের ‘ম্যান অব দ্য ইয়ার’সহ দেশি-বিদেশী বহু পুরস্কার ও সম্মাননা।

নড়াইল জেলা প্রশাসক আনজুমান আরা জানালেন, নড়াইলে শিল্পীর বাসভবনে ২০০৯ সালে স্থাপন করা হয় এসএম সুলতান আর্ট কলেজ। বর্তমানে এটি এসএম সুলতান বেঙ্গল চারুকলা মহাবিদ্যালয়। কলেজটি এমপিওভূক্তি ও অবকাঠামোগত উন্নয়নের চেষ্টা চলছে

১৯৯৪ সালের যশোর সম্মিলিত সামরিক হাসপাতালে মৃত্যু হয় কিংবদন্তী এই শিল্পীর। এস এম সুলতানের মৃত্যুবার্ষিকী উপলক্ষে নানা কর্মসূচি গ্রহণ করেছে নড়াইল জেলা প্রশাসন ও এসএম সুলতান ফাউন্ডেশন।