চিকিৎসা খরচ যোগাতে ফ্ল্যাট করতে হচ্ছে ক্রিকেটার মোশাররফ রুবেলকে। ছবি : সংগৃহীত

বাংলাদেশ জাতীয় দলের ক্রিকেটার মোশাররফ হোসেন রুবেল। বামহাতি এই বোলার ২০১৯ সালের মার্চ মাসে ব্রেন টিউমারে আক্রান্ত হোন। সিঙ্গাপুরের বিখ্যাত হাসপাতাল মাউন্ট এলিজাবেথে এলভিন হংয়ের কাছে যান রুবেল। সেখানে তার অস্ত্রপচার করে পুরো টিউমার অপসারণ সম্ভব হয়নি। সে কারনে নিতে হয় রেডিও ও কেমোথেরাপি। সেসময় তার পাশে দাড়িয়েছিল প্রাইম ব্যাংক ক্রিকেট ক্লাব। কিন্তু তাতেই শেষ হয়নি। পুরোপুরি সুস্থ হতে আরো পাঁচবার তাকে কেমোথেরাপি নিতে হবে।

ব্রেইন টিউমারে অস্ত্রোপচারের পর দফায় দফায় থেরাপি গ্রহণের মাধ্যমে কিছুটা ঝুঁকিমুক্ত হলেও পুরোপুরি সুস্থ হয়ে উঠেননি মোশাররফ হোসেন রুবেল। নিজের চিকিৎসার জন্য ইতোমধ্যেই ১ কোটি টাকা খরচ করেছেন তিনি। কিন্তু আরো থেরাপির জন্য প্রায় ৫০ লক্ষ টাকা প্রয়োজন। সে কারনে নিজের ফ্ল্যাট বিক্রির সিদ্ধান্ত নিয়েছেন তিনি।

৮ জুলাই সোমবার নিজের ফেসবুক ওয়ালে এক পোস্ট দিয়ে ফ্ল্যাট বিক্রির কথা জানান জাতীয় দলের এই ক্রিকেটার। তিনি তার ফেসবুক পোস্টে লিখেন, ‘এখন যুদ্ধ করতে হচ্ছে কেমোথেরাপির সঙ্গে। আমার চিকিৎসা বাবদ ইতোমধ্যে প্রায় ১ কোটি টাকা খরচ হয়েছে। কেমোথেরাপির জন্য আরও ৫০ লাখ টাকা প্রয়োজন। আমাকে আমার ফ্ল্যাট বাড়িটি বিক্রি করতে হচ্ছে (১৫৫০ স্কয়ার ফুট)। কেউ কিনতে আগ্রহী হলে আমাকে জানান, আর দোয়া রাখবেন অবশ্যই। শুধু আপনাদের দোয়াই আমাকে এখনো বাঁচিয়ে রেখেছে। আল্লাহ যেন আমাদের সবাইকে ক্ষমা করে দেন।’

উল্লেখ্য, জাতীয় দলের জার্সি গায়ে মোশাররফ রুবেল পাঁচটি আন্তর্জাতিক ওয়ানডে ম্যাচ খেলে চারটি উইকেট নিয়েছেন। পাশাপাশি ঘরোয়া ক্রিকেটেও বেশ সফল রুবেল। প্রথম শ্রেণীর ক্রিকেটে ৩৩০৫ রানের পাশাপাশি ৩৯২টি উইকেট নিয়েছেন তিনি। অন্যদিকে লিস্ট ‘এ’ ক্যারিয়ারের ব্যাট হাতে ১৭৯২ রানের পাশাপাশি বল হাতে ১২০টি উইকেট নিয়েছেন মোশাররফ রুবেল।

আজকের পত্রিকা/কেএইচআর/