চার বছর পর বাজারে অ্যাপলের নতুন আইপড। ছবি: সংগৃহীত

আধখাওয়া অ্যাপেলের অনুরাগীদের জন্য সুখবর। প্রায় চার বছর পর বাজারে এল অ্যাপলের নতুন আইপড। নতুন জেনারেশনের এই আইপড পাওয়া যাচ্ছে ভারত-সহ ২৪টি দেশে। আইফোনের মতো দেখতে এই আইপডটি স্বাভাবিক ভাবেই গ্যাজেটপ্রেমীদের মনে প্রবল উন্মাদনার সৃষ্টি করেছে।

অ্যাপলের ২০১৯ নিউ জেনারেশন আইপডটি ২০১৫-র থেকে দ্বিগুণ দ্রুত এবং ওজনেও অনেক হাল্কা। শুধু গান শোনা নয়, বিভিন্ন ধরনের মজাদার ভার্চুয়াল গেমও খেলা যাবে এর মাধ্যমে। এ ছাড়াও থাকছে ‘গ্রুপ ফেস টাইম’ নামক আকর্ষণীয় ফিচার যা এর আগে কোনও দিন আইপড-এ ব্যবহৃত হয়নি। এই ফিচারটির মাধ্যমে একই সময়ে অনেকের সঙ্গে খুব সহজে ভিডিও চ্যাট করা সম্ভব হবে বলে জানিয়েছেন অ্যাপলের অন্যতম ভাইস প্রেসিডেন্ট গ্রেগ জসওয়েক। শুধু তাই নয়, এই প্রথম বার আইপডে ‘এ১০ ফিউশন চিপ’-এর মতো অত্যাধুনিক প্রযুক্তির ব্যবহার বিভিন্ন থ্রি ডি অবজেক্টকে অনেক বেশি প্রাণবন্ত করে তুলেছে।

এর আগে ২০০১ সালে সঙ্গীতানুরাগীদের জন্য অ্যাপল প্রথম তাদের ‘আইপড টাচ’ বাজারে নিয়ে আসে যা ধীরে ধীরে জনপ্রিয়তার শীর্ষে পৌঁছয়। এর পর ২০১৫-তে নিউ জেনারেশন আইপডকে আরও দ্রুত ও অভিনব করে তোলে আইওএস নামক গেমিং প্ল্যাটফর্ম।

প্রায় চার বছর বিরতির পর গত ২৮ মে অ্যাপল তার নিউ জেনারেশন মডেলটি বাজারে নিয়ে আসে, যার দাম ধার্য হয়েছে ১৪৪ ডলার। ভারতীয় মুদ্রায়, ৩২ জিবি মডেলের দাম ১৮ হাজার ৯০০ টাকা, ১২৮ জিবি মডেলের দাম ২৮ হাজার ৯০০ টাকা এবং ২৫৬ জিবি মডেলের দাম পড়বে ৩৮ হাজার ৯০০ টাকা।
নতুন জেনারেশন আইপড কি পারবে প্রত্যাশা পূরণ করতে? অপেক্ষায় রয়েছেন অ্যাপল-প্রেমীরা।
এ বছরেরই গোড়ার দিকে নানা ধরনের খবর, স্ট্রিমিং ভিডিও প্ল্যান এবং মজাদার গেমের সম্ভার নিয়ে অ্যাপল হাজির হয়েছিল তার অনুরাগীদের সামনে। অ্যাপল টিভি পরিষেবা এবং বিজ্ঞাপন-মুক্ত পরিষেবাও বাজারে খুব শিগগিরই আসতে চলেছে।

আজকের পত্রিকা/এআরকে