ধর্ষণ। ছবি:সংগৃহীত

চরফ্যাশন উপজেলার দক্ষিণ আইচা থানার চরমানিকা ইউনিয়নের ৯ নং ওয়ার্ডের মেম্বার খোকনের বিরুদ্ধে ধর্ষণের অভিযোগ উঠেছে।

স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, গত সোমবার রাত ৩টার সময় লোকজন ডাকা চিৎকার করলে স্থানীয় লোকজন ঘটনাস্থলে আসে। এসে আমরা ইউপি‘র সদস্য খোকনকে দেখতে পাই। পরে ধর্ষিতার বাড়ির বলু মাঝির জিম্মায় ছেড়ে দেওয়া হয়।

একাধিক সূত্রে জানা যায়, ইউপির সদস্য গৃহবধুর কাছে এলে স্থানীয় পাশের লোকজন টের পেয়ে খোকন মেম্বারকে শফিঊল্যাহর ছেলে নয়ন (৩০) ও আঃ রশিদের ছেলে শাহে আলম (৩২) আটকে ফেলে। তাকে নিয়া যায়। বলু মাঝি তাদের কাছ থেকে জিম্মায় ছেড়ে দেয়।

উপজেলার চরমানিকা ৯নং ওয়ার্ডের ইউপি সদস্য খোকন বলেন, আমার বিরুদ্ধে ষড়যন্ত্র করা হচ্ছে।

দক্ষিণ আইচা থানা অফিসার ইনচার্জ ওসি মাসুম তালুকদার জানান, আমি ব্যাপারটা রাতে শুনেছি, কিন্তু আমার কাছে কোনো অভিযোগ আসেনি। অভিযোগ আসলে আইনানুগ ব্যবস্থা নেব ।

আমির হোসেন/চরফ্যাশন