অফিস সহকারী এ কে এম ফজলুল হক স্বপন

হবিগঞ্জের বানিয়াচং সমাজসেবা অফিসের আলোচিত অফিস সহকারী এ কে এম ফজলুল হক স্বপনকে ঘুষ-দুর্নীতির দায়ে সিলেটের গোলাপগঞ্জ সমাজসেবা অফিসে ষ্ট্যান্ড রিলিজ করা হয়েছে।

গত ১০ ডিসেম্বর সিলেটের বিভাগীয় সমাজসেবা অধিদপ্তরের পরিচালক সন্দ্বীপ কুমার সিংহ তাকে বদলীর নির্দেশ দেন। তার বদলীর খবরে অফিসপাড়া ও বানিয়াচংয়ের সর্বত্র স্বস্থি বিরাজ করছে।

জানা যায়, দীর্ঘদিন যাবৎ বানিয়াচংয়ের স্থায়ী বাসিন্দা হওয়ার সুবাদে বানিয়াচং সমাজসেবা অফিসের সহকারী একেএম ফজলুল হক স্বপন অফিসটিকে ঘুষ-বানিজ্যের আখড়ায় পরিণত করেন।

দীর্ঘদিন যাবৎ ওই অফিসে স্থায়ীভাবে কোন অফিসার না থাকায় সব কাজকর্ম তিনিই সামলাতেন। এ সুবাদে কিছু অসাধু ব্যক্তিদের নিয়ে দুর্নীতির একটি সিন্ডিকেট গড়ে তুলেন। সম্প্রতি ৬ নং কাগাপাশা ইউনিয়নের প্রতিবন্ধী ও ক্যান্সারে আক্রান্ত হয়ে মৃত্যুবরনকারী সুলেমা বেগমের ৫০ হাজার টাকা চেক তার আত্মীয়ের কাছ থেকে ৫ হাজার টাকা ঘুষ নিলে তার বিরুদ্ধে একটি লিখিত অভিযোগ দায়ের করা হয়।

অভিযোগটি দায়ের করেন সুলেমার ভাই আশরাফ মিয়া। এপ্রেক্ষিতে জাতীয় ও স্থানীয় পত্রিকায় সংবাদ প্রকাশ হলে দুর্নীতিবাজ ফজলুল হকের বিরুদ্ধে থলের বিড়াল বেরিয়ে আসে।

এ ব্যাপারে সমাজসেবা অধিদপ্তর সিলেট বিভাগীয় পরিচালক সন্দ্বীপ কুমার সিংহ জানান তার বিরুদ্ধে বিভন্ন অভিযোগের ভিত্তিতে তাৎক্ষনিক বদলী করা হয়েছে। অভিযোগ গুলোর বিষয়ে বিভাগীয় তদন্ত সাপেক্ষে ব্যবস্থা নেয়া হবে বলে জানান তিনি।

জীবন আহমেদ লিটন/বানিয়াচং