ধর্ষণ। প্রতীকী ছবি

মানিকগঞ্জের ঘিওরে চলন্ত বাসে জর্ডান ফেরত এক নারীকে ধর্ষণ চেষ্টার অভিযোগ উঠেছে। এ ঘটনায় বাসের চালক ও হেলপারকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ।

শুক্রবার রাতে ঢাকা-দৌলতপুর-টাঙ্গাইল আঞ্চলিক মহাসড়কে এ ঘটনা ঘটে।গ্রেফতাররা হলেন- স্বপ্ন পরিবহনের চালক নায়েব আলী (৪০) ও হেলপার সোহাগ (২০)।

চালকের বাড়ি মানিকগঞ্জের হরিরামপুর উপজেলায় এবং হেলপারের বাড়ি নাটেরের নলডাঙ্গায়। ঘিওর থানা পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আশরাফুল আলম ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে জানান, জর্ডান ফেরত ওই নারী শুক্রবার সন্ধ্যায় হজরত শাহজালাল আšতর্জাতিক বিমানবন্দর থেকে রওনা দিয়ে মানিকগঞ্জ বাসস্ট্যান্ডে পৌঁছেন। এরপর তার গ্রামের বাড়ি ঘিওরের উদ্দেশ্যে স্বপ্ন পরিবহনের একটি বাসে ওঠেন।

সকল যাত্রী নেমে গেলে বাসের লাইট বন্ধ করে দিয়ে চালক নায়েব আলী ও হেলপার সোহাগ তাকে ধর্ষণের চেষ্টা করেন।এ সময় ওই নারী চিৎকার-চেঁচামেচি করলে তাকে বাস থেকে ধাক্কা দিয়ে ফেলে দেয়া হয়। বাসটি দ্রুত বেগে দৌলতপুরের দিকে চলে যায়। স্থানীয়রা পুলিশকে খবর দেন এবং গাড়ির পেছনে ধাওয়া করেন। পরে দৌলতপুর থানা পুলিশের সহায়তায় চালক ও হেলপারকে গ্রেফতার করা হয়। শনিবার গ্রেফতারদের সাতদিনের রিমান্ড চেয়ে আদালতে পাঠানো হয়েছে।এ ঘটনায় ওই নারী বাদী হয়ে রাতেই ঘিওর থানায় মামলা করেন।

শাহজাহান বিশ্বাস/মানিকগঞ্জ