কালিহাতীতে সড়ক অবরোধ

গ্রাম ডুবে যাওয়ায় ক্ষোভে ব্রিজের ডাইভারশন কেটে অবরোধ করেছেন গ্রামবাসী। এ সময় ওই স্থানে বেইলি ব্রিজ নির্মাণ ও পানি বের করার দাবি জানিয়েছেন বন্যা কবলিত গ্রামগুলোর বাসিন্দারা।

টাঙ্গাইলের কালিহাতীতে ১০ গ্রামে বন্যার পানি ঢুকে গৃহবন্দি হয়ে পড়ায় ক্ষোভে ভূঞাপুর-টাঙ্গাইল সড়কের শ্যামপুর ব্রিজের ডাইভারশন কেটে অবরোধ ও বিক্ষোভ করেছেন স্থানীয়রা।

শনিবার দুপুরে ওই সড়কের ফুলতলা ও শ্যামপুর ডাইভারশন কেটে অবরোধ করেন বিক্ষুব্ধ জনতা। এর ফলে ওই সড়ক দিয়ে সকল ধরনের যানবাহন চলাচল বন্ধ রয়েছে। আন্দোলনকারীরা জানান, কালিহাতী উপজেলার ফুলতলা, রৌহা, ভাঙ্গাবাড়ি, চর ভাবলা, হাকিমপুর, ভাবলা, মিরপুর, শেরপুর, দেওলাবাড়ি ও রাজাবাড়ির একাংশ এলাকায় বন্যার পানি প্রবেশ করে।
এ পানি বৃদ্ধি পেয়ে ঘরবাড়ি ও রাস্তা ঘাট তলিয়ে গেছে।

এদিকে ভূঞাপুর-টাঙ্গাইল সড়কের বেশ কয়েকটি এলাকায় নতুন সেতু নির্মাণের কাজ চলছে। নির্মাণাধীন ওই সেতুর পাশে তৈরি করা হয়েছে নিম্নমানের ডাইভারশন। কিন্তু ডাইভারশন নির্মাণ হলেও পানি যাওয়ার কোনো ব্যবস্থা রাখা হয়নি। এ কারণে বন্যার পানি আটকে এ উপজেলার দশটি গ্রাম প্লাবিত হয়েছে।

এ পরিস্থিতি স্বাভাবিক করতে ডাইভারশনের পাশাপাশি পানি যাতায়াতের জন্য বেইলি ব্রিজ নির্মাণের দাবি জানান তারা। বিষয়টি নিশ্চিত করে কালিহাতী উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) শাহরিয়ার রহমান জানান, ইতিপূর্বেই পানি চলাচলের জন্য বিকল্প ব্রিজ নির্মাণের প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেয়া হয়েছে। কিন্তু স্থানীয়রা শ্যামপুর ব্রিজের ডাইভারশনটি অন্যায়ভাবে কেটে দিয়েছেন।

আজকের পত্রিকা/আরকে