ধর্ষণ প্রতীকী ছবি

বরিশাল জেলার গৌরনদী উপজেলার চন্দ্রহার গ্রামে শারীরিক ও বুদ্ধি প্রতিবন্ধী কিশোরীকে (১৪) ধর্ষণের ঘটনায় ধর্ষক লিয়াকত ফকিরকে আটকে গণধোলাই দিয়ে পুলিশে সোর্পদ করেছে এলাকাবাসী।

১৫ মে বুধবার দুপুরে ওই তরুণীকে ডাক্তারি পরীক্ষার জন্য শেরেবাংলা মেডিকেল কলেজ হাসাপাতালে প্রেরণ করা হয়। ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করেছেন গৌরনদী থানা পুলিশ।

লিয়াকত ফকির উপজেলার চন্দ্রহার গ্রামের মৃত গনি ফকিরের ছেলে।

গৌরনদী মডেল থানার পুলিশ পরিদর্শক (তদন্ত) মোঃ মাহাবুবুর রহমান জানান, প্রতিবেশী শারীরিক ও বুদ্ধি প্রতিবন্ধী কিশোরীকে সকাল সাড়ে ১০টার দিকে ধর্ষণকালে এলাকার লোকজন লিয়াকতকে হাতেনাতে অটক করে গণধোলাই দেয়।

এর আগে গত ২৯ মার্চ সকালেও পার্শ্ববর্তী জাহিদ ফকিরের নির্জন ঘরে নিয়ে ওই কিশোরীকে ধর্ষণ করে লিয়াকত।

এ ঘটনায় কিশোরীর পিতা বাদী হয়ে ১৫ মে বুধবার দুপুরে গৌরনদী মডেল থানায় নারী ও শিশু নির্যাতন আইনে মামলা দায়ের করেন। ওই মামলায় লিয়াকতকে গ্রেপ্তার দেখিয়ে আদালতের মাধ্যমে কারাগারে প্রেরণ করা হয়।

আজকের পত্রিকা/এমএআরএস