সিলেটের গোলাপগঞ্জে ধর্ষণ মামলার আসামীসহ ২ জনকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। পৃথক দুটি অভিযান চালিয়ে তাদের গ্রেফতার করা হয়। ধর্ষণ মামলায় গ্রেফতারকৃত আসামী হলো উপজেলার ফুলবাড়ি পূর্বপাড়ার বাইদ্দা কলনীর মৃত জয়নাল আবেদিনের পুত্র নূর আলম (২৫)।

মাদক মামলায় গ্রেফতারকৃত আসামী উপজেলার পৌর এলাকার রণকেলী উত্তর পাড়ার মৃত হারুনুর রশিদের ছেলে জামিল আহমদ (৪০) ।

পুলিশ সূত্রে জানা যায়, গত শুক্রবার (৩০ আগস্ট) অনুমানিক সকাল ৭ টার সময় উপজেলার ফুলবাড়ি পূর্বপাড়ার বাইদ্দা কলনীর মৃত আব্দুল মালেকের মেয়ে কুলসুমা বেগম (ছদ্মনাম) ঘুম থেকে উঠে গোলাপগঞ্জ এমসি একাডেমির মেইন গেইটের সামনে যাওয়া মাত্র পূর্বপরিকল্পিতভাবে উৎপেতে থাকা আসামী নূর আলম কুলসুমাকে বিবাহের প্রলোভন দেখিয়ে অজ্ঞাত হোটেলে নিয়ে ধর্ষণ করে।

এ ঘটনায় বিকেলে ভিকটিমের মা লাকি মনি (৪০) আসামী নূর আলমকে আসামী করে গোলাপগঞ্জ মডেল থানায় একটি ধর্ষণ মামলা (মামলা নং-০১/০১-০৯-১৯) দায়ের করেন। এরই পরিপেক্ষেতে সোমবার ভোরে ফুলবাড়ী পূর্বপাড়ার বাইদ্দা কলোনীর আসামীর বন্ধু কাউছার আহমদের বসতঘর থেকে নুর আলমকে গ্রেফতার করে পুলিশ।

এদিকে রোববার রাত সাড়ে ১০ টার দিকে টিকরবাড়িস্থ খাসি খালের ব্রিজের পাশে থেকে গোলাপগঞ্জ মডেল থানার এসআই রাজেন্দ্র প্রসাদ দাশ একদল পুলিশ নিয়ে মাদক উদ্ধার ও বিশেষ অভিযান পরিচালনাকালে জামিল আহমদকে ৫২পিছ ইয়াবা ট্যাবলেট সহ গ্রেফতার করেন। এ ঘটনায় পুলিশ বাদী হয়ে মাদক দ্রব্য নিয়ন্ত্রণ আইনে একটি (মামলা নং-০২) মামলা দায়ের করেছে বলেও জানা যায়।

ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে গোলাপগঞ্জ মডেল থানার অফিসার ইনচার্জ মিজানুর রহমান মিজান বলেন, তাদ্রে দু’জনকে সোমবার সকালে আদালতের মাধ্যমে জেলহাজতে প্রেরণ করা হয়েছে।

নোমান মাহফুজ/গোলাপগঞ্জ