গুলিবিদ্ধ এক ব্যক্তি

গাইবান্ধায় পুলিশের সাথে আন্তঃজেলা ডাকাত দলের ব্যাপক গোলাগুলির ঘটনা ঘটেছে। এসময় গুলিবিদ্ধ দুই ডাকাতসহ তিন ডাকাতকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ।

সদর থানা পুলিশ সূত্রে জানা গেছে, বৃহস্পতিবার (৭ নভেম্বর) এ গোলাগুলির ঘটনা ঘটে।

ডাকাতির উদ্দেশ্য সদর উপজেলার গাইবান্ধা-বালাসী সড়কে ভোর রাতে একদল ডাকাত পুলবন্ধি এলাকায় অবস্থান নিলে গোপন খবরের ভিত্তিতে পুলিশ সেখানে অভিযান চালায়। পুলিশের উপস্থিতি টের পেয়ে ডাকাত দল পুলিশের উপর গুলি চালায়।

এ সময় পুলিশ পাল্টা গুলি চালালে কয়েকজন ডাকাত পালিয়ে গেলেও ঘটনাস্থল থেকে আন্তঃজেলা ডাকাত দলের সদস্য মেজবাউল, মধু মিয়া ও তৌহিদুল ইসলামকে (৩৪) গ্রেফতার করে পুলিশ। এদের মধ্যে মেজবাউল (৪০) ও মধু মিয়াকে (৪৮) গুলিবিদ্ধ অবস্থায় প্রথমে গাইবান্ধা জেলা সদর হাসপাতালে এবং পরে উন্নত চিকিৎসার জন্য রংপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে।

এছাড়া গুলিবিনিময় কালে চার পুলিশ সদস্য আহত হয়েছেন।

ডাকাত মেজবাউল গাইবান্ধার পলাশবাড়ী উপজেলার ভগবানপুর গ্রামের মৃত আবুল কাশেমের ছেলে, মধু মিয়া একই উপজেলার মরিচাপুর গ্রামের কাজেম আলীর ছেলে এবং তৌহিদুল ইসলাম দিনাজপুর জেলার ঘোড়াঘাট উপজেলার কশিগারী সোনারপাড়া গ্রামের দিলজার ইসলামের ছেলে বলে জানা গেছে।

এ ব্যাপারে সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (তদন্ত) মুজিবর রহমান জাগরণকে জানান, গ্রেফতারকৃত তিন ডাকাতের বিরুদ্ধে ডাকাতির প্রস্তুতি ও পুলিশের উপর হামলার অভিযোগে এসআই শফিউর রহমান বাদি হয়ে সদর থানায় মামলা দায়ের করেছেন। এই তিন ডাকাতের বিরুদ্ধে দেশের বিভিন্ন থানায় একাধিক মামলা রয়েছে বলেও তিনি জানান।

ছাদেকুল ইসলাম রুবেল/গাইবান্ধা