প্রখ্যাত ঔপন্যাসিক ও গল্পকার শহীদুল জহিরের ৬৬ তম জন্মদিন আজ। ১৯৫৩ সালের ১১ সেপ্টেম্বর পুরান ঢাকার নারিন্দার ৩৬ ভূতের গলিতে জন্মগ্রহণ করেন। শৈশবে তার নাম ছিল মোহাম্মদ শহীদুল হক।

অধুনিক বাংলা সাহিত্যে জাদুবাস্তবতার স্বাতন্ত্র চর্চার জন্য শহীদুল জহির পরিচিত। মাত্র ৫৪ বছরের জীবনেই তিনি সৃষ্টি করেছেন বাংলা সাহিত্যের স্মরণীয় বেশ কিছু মুহূর্ত তাঁর উপন্যাসে, তাঁর গল্পে।

শহীদুল জহির চারটি উপন্যাস এবং তিনটি গল্পগ্রন্থ প্রকাশ করেছেন। ‘আবু ইব্রাহীমের মৃত্যু’ তাঁর উল্লেখযোগ্য উপন্যাসের একটি, যেটির জন্য ২০১০ সালে তিনি মরণোত্তর প্রথম আলো বর্ষসেরা বই ১৪১৫ পুরস্কার লাভ করেন।

এছাড়াও ‘জীবন ও রাজনৈতিক বাস্তবতা’, ‘সে রাতে পূর্ণিমা ছিল’, ও ‘মুখের দিকে দেখি’ উপন্যাসগুলোকে বাংলা সাহিত্যে অনন্য সংযোজন বলে বিবেচিত হয়। ‘পারাপার’, ‘ডুমুরখেকো মানুষ ও অন্যান্য গল্প’, এবং ‘ডলু নদীর হাওয়া ও অন্যান্য গল্প’ তাঁর রচিত উল্লেখযোগ্য গল্পগ্রন্থ।

শহীদুল জহির ছিলেন চিরকুমার। কথা ম্যাগাজিনের সম্পাদক কামরুজ্জামান জাহাঙ্গীরকে এক সাক্ষাৎকারে তিনি এ ব্যাপারে বলেছিলেন, ‘আমি এ ব্যাপারে কিছুই বলতে পারব না, এটা এমনিতেই ঘটে গেছে।’ তিনি কিছুটা অন্তর্মুখী ছিলেন।

২০০৮ সালের ২৩ মার্চ মাত্র ৫৪ বছর বয়সে খ্যাতিমান এই সাহিত্যিক ল্যাবএইড কার্ডিয়াক হাসপাতালে হৃদরোগে আক্রান্ত হয়ে মারা যান। তাকে মিরপুর বুদ্ধিজীবী কবরস্থানে সামধিস্থ করা হয়।