বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য ড. খন্দকার মোশাররফ হোসেন। ছবি : সংগৃহীত

খালেদা জিয়াকে মুক্ত করতে আন্দোলন করার জন্য জনগণ প্রস্তুত আছে বলে মন্তব্য করেছেন বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য ড. খন্দকার মোশাররফ হোসেন। ২৫ মে শনিবার জাতীয় প্রেসক্লাবের মাওলানা মোহাম্মদ আকরাম খাঁ হলে জাতীয়তাবাদী নাগরিক দল আয়োজিত দোয়া ও আলোচনা সভায় তিনি এসব কথা বলেন।

বিএনপির প্রতিষ্ঠাতা জিয়াউর রহমানের ৩৮তম মৃত্যুবার্ষিকী এবং দলটির চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার নিঃশর্ত মুক্তি ও সুস্থতা কামনায় আয়োজিত অনুষ্ঠানে ড. খন্দকার মোশাররফ হোসেন বলেন, ‘খালেদা জিয়াকে মুক্ত করতে আন্দোলন করার জন্য জনগণ প্রস্তুত আছে। এখন শুধু নেতাকর্মীদের ঐক্যবদ্ধ হওয়ার অপেক্ষা। আমরা সেই কাজটিই কর‌ছি।’

খন্দকার মোশাররফ হোসেন বলেন, ‘প্রধানমন্ত্রীর নিয়ন্ত্রিত বিচারালয় থেকে খালেদা জিয়াকে মুক্ত করা যাবে, এটা কেউ বিশ্বাস করে না। অতএব আন্দোলন করতে হবে। আমাদের দলের সর্বস্তরের নেতাকর্মীরা এটাই বলেন। ত‌বে শুধু বললেই হবে না। আন্দোলন করে দেখাতে হবে। আর এ আন্দোলন করতে হলে, নেতাকর্মীদের ঐক্যবদ্ধ হয়ে জনগণকে সঙ্গে নিয়ে করতে হবে। তাহ‌লে আন্দোলন সফল হবে।’

ভারতের জনগণ ও নরেন্দ্র মোদিকে অভিনন্দন জানিয়ে ড. খন্দকার মোশাররফ হোসেন বলেন, ‘আমি ভারতের জনগণকে অভিনন্দন জানাই, তারা নিজেদের ভোট দিতে পেরেছেন। আর মোদিকে অভিনন্দন জানাই এ জন্য যে, তিনি ক্ষমতায় থেকেও একটি সুষ্ঠু নির্বাচন করেছেন।’

বর্তমান সরকারের উদ্দেশে মোশাররফ হোসেন বলেন, ‘আপনারা সব সময় ভারত ভারত করেন। অথচ নির্বাচনের ক্ষেত্রে তাদের অনুসরণ করেন না। ভারতের কাছ থেকে নির্বাচনের পদ্ধতি শিখতে হ‌বে। তাদের কাছ থেকে গণতন্ত্রের চর্চা কীভাবে করতে হয়, তা শিখ‌তে হ‌বে।’

জাতীয়তাবাদী নাগরিক দলের সভাপতি শাহজাদা সৈয়দ মোহাম্মদ ওমর ফারুক পীর সাহেবের সভাপতিত্বে আলোচনা সভায় আরও উপস্থিত ছিলেন বিএনপি চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা আব্দুস সালাম, নির্বাহী কমিটির সদস্য ও স্বাধীনতা ফোরামের সভাপতি আবু নাসের মোহাম্মদ রহমতউল্লাহ, শ্রমিক দলের সভাপতি আনোয়ার হোসেন প্রমুখ।

আজকের পত্রিকা/রাজনীতি/আ.স্ব