খালি পেটে শুয়ে পড়া আপনার শরীরকে নানাভাবে প্রভাবিত করতে পারে। ছবি: সংগৃহীত

অনেকেই ক্লান্তি অথবা ক্যালোরির সীমাবদ্ধতার কারণে রাতে না খেয়েই শুয়ে পড়েন। আপনি যদি এটি দুই-একবার করে থাকেন তাহলে ঠিক আছে, তবে আপনি যদি এটি অভ্যাসে পরিণত করে ফেলেন, তাহলে সমস্যা আছে। খালি পেতে শুয়ে পড়া আপনার শরীরকে নানাভাবে প্রভাবিত করতে পারে। জেনে নিন, কেন-

পুষ্টির অভাব

একজন ব্যক্তি খালি পেটে বিছানায় যাওয়ার অভ্যাস করেন তাহলে তার ক্ষুদ্রতর পুষ্টির অভাব হবে। ছবি: সংগৃহীত

রাতে খাবার না খাওয়ার ফলে আপনার শরীরের পুষ্টির অভাব হবে, বিশেষ করে মাইক্রো-পুষ্টিকর অভাব। ম্যাআমাদের শরীরকে কার্যকর পদ্ধতিতে চালানোর জন্য ম্যাগনেসিয়াম, ভিটামিন বি ১২ এবং ভিটামিন ডি৩ এর মতো ক্ষুদ্র পুষ্টি প্রয়োজন। যদি একজন ব্যক্তি খালি পেটে বিছানায় যাওয়ার অভ্যাস করেন, তাহলে তার ক্ষুদ্রতর পুষ্টির অভাব হবে।

বিপাককে প্রভাবিত করে

আপনি যদি নিয়মিত আপনার রাতে খাবার এড়িয়ে যান তবে এটি আপনার বিপাককে ক্ষতিগ্রস্ত করতে পারে। ছবি: সংগৃহীত

আপনি যদি নিয়মিত আপনার রাতের খাবার এড়িয়ে যান, তবে এটি আপনার বিপাককে ক্ষতিগ্রস্ত করতে পারে। এটা আপনার ইনসুলিন স্তরে প্রভাব ফেলতে পারে, যা শরীরের সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ হরমোন। এছাড়া এটি কোলেস্টেরল এবং থাইরয়েড স্তরকেও প্রভাবিত করে। সঠিক সময় সঠিক খাবার খাওয়া না হলে, এটি আপনার হরমোনকে প্রভাবিত করতে পারে, যা অন্যান্য রোগের প্রবণতা সৃষ্টি করে।

ঘুমানোর অসুবিধা

ক্ষুধা আপনাকে মানসিকভাবে সতর্ক রাখবে এবং আপনাকে ঘুমানোর সুযোগ দেবে না। ছবি: সংগৃহীত

ক্ষুধা আপনাকে মানসিকভাবে সতর্ক রাখবে এবং আপনাকে ঘুমানোর সুযোগ দেবে না। এটা ঘটে কারণ আমাদের শরীর নিউরোলজি এবং হরমোনগতভাবে নিয়ন্ত্রিত হয় এবং রাতে পর্যাপ্ত খাবার না থাকায় এর উপর প্রভাব পড়তে পারে।

ওজন বৃদ্ধি

ওজন কমানোর একমাত্র কার্যকরী উপায় পরিকল্পিত পদ্ধতিতে খাওয়া। ছবি: সংগৃহীত

ওজন কমানোর জন্য অনেকেই রাতের খাবার এড়িয়ে চলেন। তারা মনে করেন, রাতে খাবার খেলে ওজন বৃদ্ধির সম্ভাবনা থাকে। তবে বাস্তবে তা ভিন্ন। ওজন কমানোর একমাত্র কার্যকরী উপায় পরিকল্পিত পদ্ধতিতে খাওয়া।

আজকের পত্রিকা/রিয়া/সিফাত

SOURCEই টাইমস