কোভিড-১৯ বৈশ্বিক মহামারিতে খাদ্যসামগ্রী মজুতসহ সতর্কতামূলক নানা পদক্ষেপের কারণে খাবার সংরক্ষণ করা নিয়ে আমাদের প্রাত্যহিক জীবনে নানা পরিবর্তন দেখা দিয়েছে। তবে, অপরিকল্পিতভাবে খাবার ক্রয় ও সঠিক সংরক্ষণের অভাবে খাবারের অপচয় ঘটে। এ প্রতিকূল সময়ে খাবারের অপচয় কোনোভাবেই হতে দেয়া উচিৎ নয়।

 

প্রায়ই আমরা খাবার সংরক্ষণের বিষয়টি বিবেচনা না করেই খাদ্যসামগ্রী কিনে থাকি; আর এতে করে খাবার অপচয়ের সম্ভাবনা বহুলাংশে বেড়ে যায়। খাবার অপচয় রোধের সর্বোত্তম উপায় হচ্ছে এর সঠিক সংরক্ষণ। আর খাদ্যসামগ্রীর সংরক্ষণে আপরাইট ফ্রিজার হতে পারে কার্যকরী সমাধান।

 

আপরাইট ফ্রিজারগুলো স্মার্ট ও স্টাইলিশ এবং এগুলো রেফ্রিজারেটর ইউনিটগুলোর অনুরূপ। এ ফ্রিজারগুলো চেস্ট ফ্রিজারের (বাংলাদেশের বাসা-বাড়িতে সর্বাধিক ব্যবহৃত) উন্নত সংস্করণ। চেস্ট ফ্রিজারের আকৃতির কারণেই এর ভেতরে অধিক পরিমাণ খাদ্যসামগ্রী সংরক্ষণ করা যায় না; ফলে, খাদ্যের অপচয় ঘটে। তবে, আপরাইট ফ্রিজারে অনেক জায়গা থাকার কারণে এর ভেতর অনায়াসেই খাদ্যসামগ্রী রাখা যায়। স্যামসাংয়ের আপরাইট ফ্রিজারের ধারণক্ষমতা ৩৩০ লিটার ও এর দু’টি মডেল রয়েছে- আরজেড৩২এম৭১২০এফ এবং আরজেড৩২এম৭১২০বিসি। এ ফ্রিজারগুলোতে বেশ কিছু ফিচার রয়েছে যা আপনার খাদ্যের অপচয়রোধে সহায়তা করবে।

 

নো ফ্রস্ট

স্যামসাংয়ের ট্রু নোফ্রস্ট ফিচার ফ্রিজারের ভেতরে ঠান্ডা বাতাস পরিবহন করে। ফলে, ফ্রিজারের ভেতর বরফ জমে না। এটি ফ্রিজারের ভেতরের তাপমাত্রা স্বাভাবিক রাখতে ও বরফের জমাট বাঁধা দূর করে খাবারকে সতেজ রাখতে সহায়তা করে। বিশেষ করে, লেটুস, শসা, টেমেটোর মতো দ্রুত পচনশীল খাদ্যসামগ্রী আপরাইট ফ্রিজারগুলোতে দীর্ঘদিন সতেজ থাকে।

 

পাওয়ার ফ্রিজ

খাবারের সতেজতা ও নিরাপদ সংরক্ষণ নিশ্চিতে ফ্রিজারের ভেতরে নতুন কোনো খাবার রাখা মাত্রই আপরাইট ফ্রিজারে থাকা পাওয়ার ফ্রিজ ফিচারটি দ্রুত ফ্রিজারের তাপমাত্রা কমিয়ে আনে।

 

অধিক জায়গা

আপরাইট ফ্রিজারে চারটি বড় ড্রয়ার, একটি ছোট ফ্ল্যাপড টপ-সেল্ফ, দু’টি উন্মুক্ত তাক, একটি স্লিম আইস মেকার এবং ছোট আকারের খাবার সামগ্রী রাখার জন্য ফ্রিজারের দরজার সাথে লাগানো ট্রে রয়েছে। এ সেল্ভ ও ড্রয়ারগুলোতে খাবার সামগ্রী সুন্দর করে সাজিয়ে রাখা যায়, যা সংরক্ষণের অভাবে আপনার কেনা খাবারসামগ্রীর অপচয়রোধ করবে। এছাড়াও, ক্যাবিনেট ফিট ডিজাইনের ফ্রিজার আপনার রান্নাঘরের সাথে সুন্দর মানিয়ে যাবে।

 

ডিজিটাল ইনভার্টার কম্প্রেসার

ফ্রিজারের ভেতরকে সাতটি ধাপে ঠাণ্ডা করতে ডিজিটাল ইনভার্টার কম্প্রেসার স্বয়ংক্রিয়ভাবে এর স্পিডকে সমন্বয় করবে। এ ফ্রিজারগুলো অধিক বিদ্যুৎসাশ্রয়ী এবং এগুলো হঠাৎ করে চালু ও বন্ধ হয় না। নিশ্চিন্তভাবে ব্যবহারের জন্য ফ্রিজারগুলোতে রয়েছে ১০ বছরের ওয়্যারেন্টি সুবিধা।

 

আপরাইট ফ্রিজার ক্রয়ে স্যামসাং ক্রেতাদের বাসায় বিনামূল্য পণ্যটি পৌঁছে দিবে, পাশাপাশি ক্রেতাদের জন্য ইনস্টল সুবিধাও থাকছে। ফ্রিজার ক্রয়ে প্রথাগত মূল্য পরিশোধ পদ্ধতি ছাড়াও ক্রেতারা মূল্য পরিশোধে শূন্য শতাংশ (০%) ইন্টারেস্টে ১২ মাস পর্যন্ত ইএমআই সুবিধা পাবেন।

 

  • 4
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
    4
    Shares