এভাবেই বিছানায় পড়ে থাকে গৃহবধূর মরদেহ।

খাগড়াছড়ির কলেজ গেইট এলাকার ভাড়া বাসা থেকে রোজিনা বেগম (২৫) নামের এক গৃহবধুর মরদেহ উদ্ধার করেছে পুলিশ।

শুক্রবার বিকালের দিকে খবর পেয়ে ঘরের তালা ভেঙ্গে গৃহবধুর লাশ উদ্ধার করা হয়। এ ঘটনায় রোজিনা বেগমের স্বামী টমটম চালক মনির হোসেন পলাতক রয়েছে।

নিহত রোজিনা বেগম জেলার পানছড়ি উপজেলার উল্টাছড়ির বাসিন্দা আব্দুর রশিদের মেয়ে। সে স্বামীসহ খাগড়াছড়ি কলেজ গেইট এলাকার একটি বাসায় ভাড়া থাকতো।

রেজিনার মা শিরিনা বেগম জানান, মাটিরাঙ্গার তাইন্দংয়ের মো. মনির হোসেনকে ভালোবেসে বিয়ে করে করে রোজিনা বেগম। আড়াই বছর আগে তাদের বিয়ে হলেও তাদের মধ্যে দীর্ঘদিন ধরে পারিবারিক কলহ চলে আসছিল। গত দু দিন ধরে মেয়ের সাথে যোগাযোগ হয়নি। আজ বাড়িওয়ালার মাধ্যমে খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে এসে মেয়ের লাশ দেখে কান্নায় ভেঙ্গে পড়েন তিনি।

স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, বুধবার রাতে টমটম জমা দিয়ে বাড়িতে আসলেও এরপর থেকে মনির হোসেনকে আর কেউ দেখেনি।

ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে খাগড়াছড়ি সদর থানার পুলিশ পরিদর্শক (তদন্ত) মো: আবছার হোসেন বলেন, তার শরীরের বিভিন্ন স্থানে আঘাতের চিহ্ন রয়েছে । প্রাথমিক ভাবে ধারনা করা হচ্ছে পারিবারিক কলহের জের এ হত্যাকা-ের ঘটনা ঘটে থাকতে পারে।

আজকের পত্রিকা/এমআরবি