কেমন হতে পারে বিশ্বকাপ ক্রিকেট। ছবি : সংগৃহীত

দুয়ারে কড়া নাড়ছে বিশ্বকাপ ক্রিকেট। ষষ্ঠবারের মতো এ বিশ্বকাপে অংশ নিচ্ছে বাংলাদেশ। ১৯৯৬ সালে আইসিসি চ্যাম্পিয়ন হয়ে বিশ্বকাপে নাম লেখায় বাংলাদেশ। ১৯৯৯ সালে প্রথমবারের মতো ইংল্যান্ড বিশ্বকাপে পতাকা ওড়ে লাল-সবুজের।

সারা বিশ্বের কোটি কোটি উৎসুক বাঙালি বিশ্বকাপ শুরুর আগেই সেই আনন্দযজ্ঞে মেতে উঠেছিল। এরই ধারাবাহিকতায় ২০১১ সালে চতুর্থবারের মতো বিশ্বকাপে অংশগ্রহণে বাংলাদেশ নিজেই আয়োজক হয়।

রাজধানীর বাংলামোটর থেকে মিরপুর-১১ পর্যন্ত সে কি জমকালো আলোকসজ্জা! হোটেল সোনারগাঁওয়ের সামনে স্থাপিত টাইগারের রেপ্লিকা তখন পথচারিদের দৃষ্টি আকর্ষণ করতো।

২০১৫ সালের একাদশ বিশ্বকাপ শুরুর বেশ আগ থেকেই ক্রীড়ামোদী ও সংগীতপ্রেমীদের মধ্যে নতুনমাত্রা যোগ করতে বিশ্বকাপ ক্রিকেট উপলক্ষে তৈরি হয় নতুন নতুন গান। ফলে, সারা দেশে ছড়িয়ে পড়ে উৎসবের আমেজ। বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডের (বিসিবি) আয়োজনে তৈরি গানে কন্ঠ দেন বরেণ্য শিল্পীরা।

ঘরের মাঠে বিশ্বকাপ বাংলাদেশ। ছবি : সংগৃহীত

এছাড়াও, বিভিন্ন বেসরকারি সংস্থা ও মোবাইল কোম্পানীগুলোও বিশ্বকাপ উপলক্ষে তখন গান করেছিল। এবার একেবারেই তেমনটি লক্ষ করা যাচ্ছে না। বরাবরের চেয়ে এবারের চিত্র একটু ভিন্ন মনে হচ্ছে। ৩০ মে থেকে ইংল্যান্ডে বিশ্বকাপের দ্বাদশ আসর শুরু হবে। আর মাত্র ক’দিন বাকি। এখনো উৎসবের তেমন কোনো সাড়া পাওয়া যাচ্ছে না।

সবকিছু কেমন যেন ঝিমিয়ে আছে। নানাবিধ কারণে এটি হতে পারে। দেশের আর্থ-সামাজিক প্রেক্ষাপট যে খুব একটা ভালো সেটি জোর গলায় বলা যাবে না। ধর্ষণের ক্রমাগত ঘটনাগুলো যে সচেতন মানুষের মনে বেশ নেতিবাচক প্রভাব ফেলেছে তা বলাই বাহুল্য। বিশ্বকাপের জার্সি নিয়েও বিতর্ক উঠেছিল। যদিও তা পরে সংশোধন করা হয়।

আপাতদৃষ্টিতে কেবলমাত্র গণমাধ্যমগুলোকেই সোচ্চার দেখা যাচ্ছে বিশ্বকাপ ক্রিকেট নিয়ে। ইতোমধ্যে তারা কাউন্ট ডাউনও শুরু করে দিয়েছে। জাতীয় পর্যায়ে এমন কোনো কাউন্ট ডাউনের খবর আমরা এ যাবত কোথাও দেখিনি। যেমনটা দেখেছিলাম ২০১১ সালের বিশ্বকাপে রাজধানীর কারওয়ানবাজার মোড়ে।

বাংলাদেশে বড় কোনো ক্রীড়া আসরে সবচেয়ে বেশি উত্তেজনা ছড়ায় ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের টিএসসি। সেখানেও এবার এ পর্যন্ত উৎসবের তেমন কোনো আয়োজন চোখে পড়ছে না। কোনো বাসা-বাড়িতেও বাংলাদেশের পতাকা চোখে পড়ছে না। যদিও ফুটবল বিশ্বকাপের শুরুর অনেক আগ থেকেই বাড়ির ছাদগুলো পছন্দের দলের পতাকায় ঢাকা পড়ে গিয়েছিল। যা কোর্ট পর্যন্ত গড়িয়েছিল।

যা হোক, সবকিছু ছাপিয়ে ক্রিকেট উন্মাদনায় মেতে উঠবে পুরো জাতি সেই প্রত্যাশাই করছি।

বোরহান বিশ্বাস, লেখক, সাংবাদিক
খিলগাঁও, ঢাকা।