কোরবানির পশুর সাথে ছবি তোলা নিয়ে যা মনে করেন আলেমরা। ছবি:সংগৃহীত

কোরবানির সময় দেখা যায়,অনেকেই তাদের নিজ পশু কোরবানির সময় তার ভিডিও মোবাইলে ধারণ করে থাকেন। আবার অনেকেই পশুর ছবি তুলে তা সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে সবার সঙ্গে শেয়ারও করে থাকেন।

এই সকল ক্ষেত্রে আলেমরা মনে করে থাকেন – এটা মূলত মানুষকে দেখানো হয়। আর মানুষকে দেখানো কোনো আমল আল্লাহ পছন্দ করেন না। তাই পশু ক্রয় করা থেকে শুরু করে জবাইয়ের দৃশ্য মেবাইলে ভিডিও কিংবা সেলফি তুলে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে দিয়ে লিখে আমাদের কোরবানির পশু কেমন হল, জবাইয়ের দৃশ্যসহ ইত্যাদি লাইক দিন, কমেন্ট করুন, শেয়ার করুন এসব করা অনুচিত। কেউ যদি আমাদের সামনে এসব করে অবশ্যই উচিত তাকে আদবের সঙ্গে বুঝিয়ে নিষেধ করা। তাকে বলা যে আমরা অন্যকে দেখানোর জন্য কোরবানি দিচ্ছি না, কোরবানি শুধু আল্লাহতায়ালাকে দেখানোর জন্য।

রাজধানীর মোহাম্মদপুরের জামিয়া রাহমানিয়া আরাবিয়া মাদ্রাসার অধ্যক্ষ মাওলানা মাহফুজুল হক বলেন, ‘এক কথায় বলবো, অপ্রয়োজনে মানুষ বা অন্য কোনও প্রাণির ছবি তোলা বা প্রকাশ করা ইসলামে নিরুৎসাহিত। কোরবানির পশুর বিকৃত ছবি হোক আর স্বাভাবিক ছবি হোক, ফেসবুকে বা অন্য কোনও মাধ্যমে অপ্রয়োজনে প্রকাশ শরিয়তের দৃষ্টিতে পছন্দনীয় কাজ নয়। ’

আজকের পত্রিকা/এসএমএস