বিদ্যুতস্পৃষ্ট। প্রতীকী ছবি।

গাজীপুর মেট্রোপলিটন কোনাবাড়ী থানাধীন আমবাগ এলাকায় বিদ্যুৎপিস্পৃষ্ট হয়ে এক স্কুল ছাত্রীর মৃত্যু হয়েছে। ১৫ জুন শনিবার কোনাবাড়ী আমবাগ মধ্যপাড়া শহিদ মুন্সির বাড়িতে এ ঘটনা ঘটে।

নিহত স্কুল ছাত্রী বাবা মাসুম ভুইয়া জানান, আমার মেয়ে সুইটি আক্তার চুমকি (১২) কে  বিকাল ৫.৩৫ মিনিটে ফুল দেবার কথা বলে শহিদ মুন্সির স্ত্রী বাড়ি ছাদে নিয়ে জান। ছাদে বিদ্যুৎ লাইন থাকায় সে লাইনে চুমকি বিদ্যুৎস্পৃষ্ট হয়। সাথে সাথে বিদ্যুৎস্পৃষ্ট হয়ে ছাদ থেকে নিচে পড়ে গিয়ে মাথায় আঘাত লাগে। পরে স্থানীয় একটি হাসপাতালে নিলে তারা সাভার এনাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতলে নেওয়ার পরমর্শ দেন।

এনাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তির কিছুক্ষণ পর চুমকি মারা যান। পরে তাকে হাসপাতাল থেকে বাসায় নিয়ে আসেন এবং কোনাবাড়ী থানা পুলিশকে খবর দেন।

পুলিশ খবর পেয়ে ঘটনাস্থানে ঘিয়ে লাশ উদ্ধার করে গাজীপুর শহিদ তাজউদ্দিন আহম্মেদ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ময়নাতদন্তের জন্য পাঠায়। কোনাবাড়ী থানার ওসি তদন্ত কলিন্দ্রনাথ গোলদার জানান, পরিবারের অভিযোগের ভিত্তিতে থানায় একটি মামলা হয়েছে।

সুইটি আক্তার চুমকি আমবাগ ইউনিক স্কুলের তৃতীয় শ্রেণির ছাত্রী। চুমকির গ্রামের বাড়ি কুমিল্লা জেলার ময়নাগঞ্জ থানার পরানপুর এলাকার ভুইয়া বাড়ির মাসুমের মেয়ে। তারা পরিবারসহ আমবাগে বাসা ভাড়া নিয়ে থাকতেন।

আজকের পত্রিকা/এসই/এমএআরএস