ছবি: ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেস

পুলওয়ামা হামলার মূল হোতা নিহত ভারতীয় সেনাবাহিনীর সঙ্গে জঙ্গিদের লড়াইয়ে কাশ্মীরের পুলওয়ামায় হামলার মূল হোতা জইশ-ই-মুহাম্মদের কমান্ডার কামরান নিহত হয়েছে। সেনাবাহিনীর সূত্রে জানানো হয়েছে এই কামরানই পুলওয়ামায় হামলার মাস্টারমাইন্ড ছিলেন। ১৮ ফেব্রুয়ারি সোমবার এই ঘটনা ঘটেছে।

১৭ ফেব্রুয়ারি রবিবার রাত থেকে পুলওয়ামার পিংলান গ্রামে এই লড়াই শুরু হয়েছে। টানা দশ ঘণ্টার লড়াইয়ে সেনাবাহিনীর এক মেজরসহ চার জওয়ান নিহত হয়েছেন। একজন সাধারণ নাগরিকেরও মৃত্যুর খবর পাওয়া গেছে। পরে ১৮ ফেব্রুয়ারি সোমবার সকালে দক্ষিণ কাশ্মীরের পুলওয়ামায় আবার নতুন করে সেনাবাহিনীর সঙ্গে জঙ্গিদের গুলি বিনিময় শুরু হয়। সেখানে সেনাবাহিনীর সাঁড়াশি আক্রমণের মুখে কামরানসহ কয়েকজন জঙ্গি আটকা পড়ে। এরপরই দুই জইশ জঙ্গি নিহত হয়েছে বলে নিশ্চিত করেছে সেনাবাহিনী।

জঙ্গি হামলার খবর আগে থেকেই ছিল সেনাদের কাছে। সে অনুযায়ী পুলিশ, সিআরপিএফ এবং স্পেশ্যাল অপারেশন গ্রুপ তৈরি ছিল। সিআরপিএফের গাড়ি বহরে আত্মঘাতী হামলায় কমপক্ষে ৪০ সেনা নিহতের ঘটনায় ভারতে দেশজুড়ে প্রতিশোধের আগুন জ্বলছে। ইতোমধ্যেই কাশ্মীরে বিচ্ছিন্নতাবাদী নেতাদের নিরাপত্তা প্রত্যাহার করা হয়েছে। তারপরই সোমবার নতুন করে জঙ্গি হামলার মুখে পড়তে হয় সেনাদের।

সিআরপিএফ সূত্র জানিয়েছে, ওই এলাকায় নিরাপত্তা দ্বিগুণ করা হয়েছে। সিআরপিএফের ডিজি রাজীব ভাটনগর জানিয়েছেন সেনাবাহিনীর গাড়ি বহরের গতিতেও পরিবর্তন আনা হয়েছে। কনভয়ের সময়ও পরিবর্তন করার কথা হয়েছে। কনভয় থামা ও বাকি গতিবিধি নিরাপত্তাবাহিনী ও জম্মু-কাশ্মীর পুলিশের সঙ্গে সংযোগ বজায় রেখেই করা হচ্ছে।

আজকের পত্রিকা/এমএআরএস