ভারত ৩৭০ ধারা বিলোপ করায় নিজের দেশেই বেশ কোণঠাসা হয়ে পড়েছেন পাক প্রধানমন্ত্রী। বিরোধীরা তাঁকে সংসদে কোণঠাসা করছেন।

কাশ্মীরি জনগণের দুর্ভোগের কথা পশ্চিমা বিশ্বকে অবহিত করবেন বলে জানিয়েছেন পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী ইমরান। প্রয়োজন হলে যুদ্ধের কথাও বলেছেন ইমরান খান।

ভারত নিয়ন্ত্রিত জম্মু-কাশ্মীরের বিশেষ মর্যাদা বাতিল করে দ্বিখণ্ডিত করার পর আজ মঙ্গলবার (৬ আগস্ট) পাকিস্তানের জাতীয় সংসদের জরুরি অধিবেশনে এ কথা বলেন তিনি। যৌথ এ অধিবেশনে ভারত সরকারের পদক্ষেপের মুখে পাকিস্তানের ভবিষ্যৎ করণীয় কী তা নিয়ে দীর্ঘ আলোচনা হয়।

আজকের অধিবেশনে ক্ষমতাসীন পাকিস্তান তেহরিকে ইনসাফ বা পিটিআই দলের সদস্যদের পাশাপাশি নওয়াজ শরীফের মুসলিম লীগ ও বিলওয়াল ভুট্টোর পাকিস্তান পিপলস পার্টি বা পিপিপিসহ- অন্য দলগুলো অংশ নেয়।

প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান অধিবেশনে অংশ নিয়ে বলেন, পুলওয়ামার মতো ঘটনার পুনরাবৃত্তি ঘটবে এবং পাকিস্তানকে দোষারোপ করবে দিল্লি। এরপর তারা পাকিস্তানের বিরুদ্ধে হামলা চালাবে এবং পাকিস্তান তার জবাব দেবে। ভারত যুদ্ধ ঘোষণা করলে পাকিস্তানও একই ব্যবস্থা নেবে এবং শেষ রক্তবিন্দু পর্যন্ত পাকিস্তান লড়াই করবে।

তবে এভাবে সমস্যার সমাধান হবে না বলে তিনি মন্তব্য করেন। কাশ্মীর ইস্যুকে গুরুত্ব সহকারে নেয়ার জন্য ইমরান খান আন্তর্জাতিক সম্প্রদয়ের প্রতি আহ্বান জানান।

আজকের পত্রিকা/আরকে