কালীগঞ্জ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স

লালমনিরহাটের কালীগঞ্জ উপজেলায় তিন শিশুকে শ্লীনতাহানীর দায়ে মোবারক হোসেন (৫৭) নামে এক ব্যাংক কর্মকর্তার বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করা হয়েছে।

বুধবার (০৪ ডিসেম্বর) দুপুরে কালীগঞ্জ থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) আরজু মোঃ সাজ্জাদ হোসেন বিষটি নিশ্চিত করেছেন। এর আগে মঙ্গলবার রাতে কালীগঞ্জ থানায় মামলাটি দায়ের করেন শ্লীনতাহানীর শিকার এক শিশুর বাবা।

অভিযুক্ত ব্যাংক কর্মকর্তা মোবারক হোসেন উপজেলার তুষভান্ডার ইউনিয়নের সুন্দ্রাহবি গ্রামের মৃত অবশ্যা শেখের ছেলে। তিনি অগ্রনী ব্যাংক লালমনিরহাটের মিশন মোড় শাখার সিনিয়র অফিসার পদে কর্মরত রয়েছেন।

মামলার বিবরনে জানা গেছে, ব্যাংক কর্মকর্তা মোবারক হোসেনের উঠানে প্রায় সময় খেলতে আসত তার প্রতিবেশী শিশুরা। কয়েক দিন ধরে ৬/৭ বছর বয়সী তার প্রতিবেশী তিন শিশুকে চকলেট দেয়ার কথা বলে শরীরের বিভিন্ন স্পর্শকাতর স্থান হাত দিয়ে শ্লীনতাহানী ঘটনায়। একই ভাবে সোমবার(২ ডিসেম্বর) ছুটিতে বাড়িতে থাকা মোবারক আলী ৩শিশুকে শ্লীনতাহানী ঘটায়।

বিষয়টি শিশুরা পরিবারের কাছে জানালে বিষয়টি জানা জানি হয়। এরপর ঘটনাটি ধামাচাপা দিতে শিশুদের পরিবারকে অর্থ দিয়ে ম্যানেজ করার চেষ্টা করেন মোবারক আলী।

অবশেষে মঙ্গলবার(৩ ডিসেম্বর) দুপুরে পরিবারের লোকজন ৩ শিশুকে কালীগঞ্জ হাসপাতালে পরীক্ষা নীরিক্ষার জন্য ভর্তি করেন। কালীগঞ্জ হাসপাতালের চিকিৎসকরা ৩ শিশুকে পরীক্ষার জন্য লালমনিরহাট সদর হাসপাতালে রেফার করেন। বর্তমানে ওই তিন শিশু লালমনিরহাট সদর হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছেন।

এ ঘটনায় শ্লীনতাহানীর শিকার ৩ শিশুর একজন বাবা বাদি হয়ে মঙ্গলবার (৩ ডিসেম্বর) রাত সাড়ে ১১টায় মোবারক আলীর বিরুদ্ধে কালীগঞ্জ থানায় একটি মামলা দায়ের করেন।

অভিযুক্ত ব্যাংক কর্মকর্তা মোবারক আলীর সাথে মোবাইলে যোগাযোগ করা হলে তিনি মোবাইল রিসিভ করেননি।

কারীগঞ্জ থানা অফিসার ইনচার্জা(ওসি) আরজু মোঃ সাজ্জাদ হোসেন ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, এক শিশুর বাবা’র দায়ের করা অভিযোগটি নিয়মিত মামলা হিসেবে নথিভুক্ত করার পর পরই রাত থেকেই অভিযুক্ত আসামীকে গ্রেফতারের চেষ্টা চলছে।

জিন্নাতুল ইসলাম জিন্না/লালমনিরহাট