গাজীপুরের কালীগঞ্জে উলুখোলা বাজারের পাঁচটি স্বর্ণের দোকানে পুলিশ পরিচয়ে’ ডাকাতি

গাজীপুরের কালীগঞ্জে ‘উলুখোলা বাজারের পাঁচটি স্বর্ণের দোকানে পুলিশ পরিচয়ে’ ডাকাতির ঘটনা ঘটেছে। ডাকাতদল প্রায় একশো ভরি স্বর্ণালঙ্কার ও কয়েকশ ভরি রুপা লুট করে নিয়ে যায়। গত রাতে উলুখোলা পুলিশ ফাঁড়ির মাত্র ২শত গজ দূরের উলুখোলা বাজারে এ ঘটনা ঘটে।

উলুখোলা বাজারের সোনালী জুয়েলার্স, রাজীব জুয়েলার্স, শিল্পী জুয়েলার্স এবং সন্দীপ জুয়েলার্সে থাকা সব স্বর্ণালঙ্কার লুট করে নিয়ে যায়।

এসময় বাজারের পাহারাদারদের এবং বিভিন্ন দোকানের কর্মচারীদের অস্ত্রের মূখে একটি কাপড়ের দোকানে আটক রাখে ডাকাতরা। পরে স্বর্নের দোকানের তালা কেটে দোকানে ঢুকে প্রায় ৩ঘন্টা ধরে ডাকাতি করে নির্বিঘ্নে চলে যায় ডাকাতরা।

দোকান মালিকরা জানায়, রাত এগারোটার দিকে পুলিশের পোশাক পরিহিত ৩০-৪০ জনের একদল ডাকাত বাজারে প্রবেশ করে। তারা প্রথমে বাজারে থাকা সাতজন পাহারাদারকে সরকার ফ্যাশন নামে একটি কাপড়ের দোকানে নিয়ে বন্দী করে রাখে এবং বাজারের প্রতিটি প্রবেশদ্বারে নিজেদের লোক দিয়ে পাহারা বসিয়ে দেয়। এরপর জুয়েলার্সের দোকানের শাটারে লাগানো তালা ভেঙ্গে একে একে পাঁচ দোকানের সিন্দুকে থাকা প্রায় একশো ভরির বেশি স্বর্ণালঙ্কার লুট করে নিয়ে পালিয়ে যায়।

তাঁরা অভিযযোগ করে আরো জানান, ‘উলুখোলা পুলিশ ফাঁড়ির পাশেই বাজার। এই ঘটনার পর সকাল আটটা পর্যন্ত কোন পুলিশই ঘটনাস্থল পরিদর্শনে আসেনি’।

পরে ঘটনাস্থল পরিদর্শন শেষে জেলা পুলিশ সুপার শামসুন্নাহার বলেন, এটি একটি সংঘবদ্ধ এবং দক্ষ ডাকাত দলের কাজ। তবে শীঘ্রই দলটিকে আটক করা সম্ভব হবে।

-শহীদুল ইসলাম/গাজীপুর