গাজীপুর। প্রতীকী ছবি

গাজীপুরের কালিয়াকৈরে মাঝুখান এলাকায় পুর্ব শত্রুতার জের ধরে গাছ কর্তনের অভিযোগ উঠেছে একই এলাকার মৃত নজুমুদ্দিনের ছেলে রহম আলী ও তার ছেলে শফিকুল ইসলামের বিরুদ্ধে।

এ ঘটনায় জায়েদা বেগম বাদী হয়ে রহম আলী ও তার ছেলে শফিকুল ইসলামসহ ৮জনের নাম উল্লেখ করে কালিয়াকৈর থানায় একটি সাধারণ ডায়েরী করেছেন।

থানার অভিযোগ সুত্রে জানা গেছে জমি সংক্রান্ত বিরোধের জের ধরে রোববার ভোরে স্থানীয় মৃত নজুমুদ্দিনের ছেলে রহম আলী ও তার ছেলে শফিকুল ইসলাম তার দলবল নিয়ে বাড়ির পাশে তার সৃজিত বিভিন্ন জাতের ফলবান ১০টি বৃক্ষ কেটে ফেলে । এতে তার প্রায় ৩০হাজার টাকার ক্ষয়ক্ষতি হয়েছে।

তিনি উল্লেখ করেন ফজরের নামাজ শেষে বাড়ির বাইড়ে আসলে তিনি দেখতে পান রহম আলী তার ছেলে শফিকুল ইসলাম তার সৃজিত গাছ কাটছে। এসময় তিনি বাড়ির অন্যান্য লোকদের ঘটনাস্থলে আসার জন্য ডাকচিৎকার করলে বাড়ির অন্যান্য লোকজন ঘটনাস্থলে এগিয়ে আসলে তারা গাছ কাটা বন্ধ করে দ্রুত ঘটনাস্থল থেকে চলে যায়।

এব্যাপারে রহম আলী জানান, ওই জমিতে নিয়ে মামলা থাকা সত্বেও জমি গাছ লাগায় তাই গাছগুলো কেটে ফেলেছি।

স্থানীয় ইউপি সদস্য মোশারফ হোসেন জানান,ওই জমি নিয়ে বহুবার বিচারে বসা হয়েছে।

স্থানীয়ভাবে এলঅকার মাতাব্বরদের নিয়ে বিচারে বসে কাগজপত্র যাচাই-বাছাই করে দেখা গেছে জমিটি মুলত জায়েদা বেগমের পৈতৃক সম্পত্তি। কাগজপত্র মুলে রহম আলী কোন ভাবেই ওই জমির মালিক না। তিনি জোড় করে জমিটি দখলে নিতে চায়।

এব্যাপারে কালিয়াকৈরের মৌচাক পুলিশ ফাড়ির আইসি মনির হোসেন জানায় বিষয়টি তদন্ত সাপেক্ষে আইনগত ব্যবস্থা গ্রহন করা হবে।

-শহীদুল ইসলাম