গাজীপুর কালিয়াকৈর উপজেলার কামরাঙ্গাচালা এলাকার এক শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে ২০২০ খ্রিস্টাব্দের এসএসসি পরীক্ষা ফরম পূরণের বোর্ডের নির্ধারিত ফি’র থেকে ৫-৬ গুণ বাড়তি ফি নেওয়ার অভিযোগ উঠেছে।

উপজেলার কামরাঙ্গাচালা এলাকার ইউনিক স্কুল এন্ড কলেজ ২০২০ খ্রিস্টাব্দের এসএসসি পরীক্ষা ফরম পূরণের জন্য ১০ হাজার ১,শ টাকা করে নেওয়া হচ্ছে। নাম প্রকাশ না করার শর্তে কয়েক জন শিক্ষার্থীর অভিভাবক জানান,আমরা গরীব মানুষ গার্মেন্টসে কাজ করে অল্প টাকা বেতন পাই। যেহেতু আমাদের ছেলে মেয়েদেরকে লেখাপড়া শিখিয়ে মানুষ করতে হবে, কি করবো কষ্ট করে হলেও টাকাটা দিতে হবে। অনেক অভিভাবক স্কুলটির পরিচালক মমিনুল ইসলামের কাছে গিয়ে অনুরোধ করলেও রেহাই পাচ্ছে না তার হাত থেকে।

এরপরেও আবার আলাদা ভাবে কোচিং করিয়ে বাড়তি টাকা নেয়ার অভিযোগও আছে পরিচালক মমিনুলের বিরুদ্ধে।

শিক্ষার্থীদের অভিভাবকরা আরও জানান,কিছু শিক্ষার্থীদের কয়েক মাসের বেতন বকেয়া থাকার কারণে তাদের প্রথমে টেস্ট পরীক্ষায় উত্তীর্ণ করানো হয়নি। পরবর্তীতে বকেয়া বেতন পরিশোধ করার শর্তে এক হাজার টাকা জরিমানা নিয়ে তাদের ফরম পূরণের সুযোগ করে দেওয়া হয়।

এ বিষয়ে ওই স্কুলের পরিচালক মমিনুল ইসলামের কাছে মুঠোফোনে জানতে চাইলে তিনি বিষয়টি স্বীকার করে বলেন, যেহেতু আমরা রেজিস্টেশন ভুক্ত স্কুল নই, সেহেতু অন্য স্কুলের মাধ্যমে ভায়া হয়ে সেন্টারে যাচ্ছি তাই একটু বেশীই নিতে হচ্ছে।

কামরাঙ্গাচালা এলাকায় খোজ নিয়ে দেখা যায় আশেপাশে থাকা অন্যান্য স্কুল গুলোতেও একই অবস্থা। ৮ হাজার থেকে ১০ হাজার টাকা করে নেয়া হচ্ছে শিক্ষার্থীদের কাছ থেকে।

এ বিষয়ে অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (শিক্ষা) মো. শফিউল্লাহ জানান, তদন্ত সাপেক্ষে আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

-শহীদুল ইসলাম