২৫ পেরিয়ে ২৬ বছরে পা রাখলো বাংলাদেশের প্রথিতযশা নাট্যদল নাট্যধারা। মঞ্চনাটক ও পথনাটকের নিত্যনতুন প্রযোজনায় দেশে ও দেশের বাইরে সুনাম অর্জন করেছে দলটি। সম্প্রতি নতুন নাটকের প্রস্তুতি নিচ্ছে নাট্যধারা। প্রযোজনা  ভিত্তিক কর্মশালার মাধ্যমে নিয়মিত অভিনয়, পরিচালনা, লাইট, সংগীত, মঞ্চ ব্যবস্থাপনার জন্য নাট্যকর্মী নিচ্ছে  নাট্যধারা।
আগ্রহীরা ৭ সেপ্টেম্বর থেকে ২৭ শে সেপ্টেম্বর পর্যন্ত আবেদনপত্র সংগ্রহ করে জমা দিতে পারবেন। আবেদনপত্র পাওয়া যাবে শিল্পকলার একাডেমির কফি হাউজ, আজিজ সুপার মার্কেটের সুরের মেলা। অনলাইনে আবেদন করতে চাইলে ভিজিট করুন :www.natyadhara.weebly.com । ফরম এর মূল্য-৫০ টাকা এবং কর্মশালা ফি-১০০০ টাকা। কর্মশালায় প্রশিক্ষন দেবেন নাট্যাঙ্গনের সনামধন্য নাট্যব্যক্তিত্বরা, বাচিকশিল্পী, যন্ত্রসংগীতশিল্পী এবং নৃত্যশিল্পী।
অবক্ষয় এবং অপরুচির বিরুদ্ধে সুস্থ নাট্যচর্চার লক্ষ্যে কতিপয় সাহসী নাট‌্যকর্মীর উদ্যোগে ১৯৯৩ সালের ২৪ জুন গঠিত নয় নাট্যধারা। এই বিশ্বাসে যে, ‘মানুষের জীবন ফুলের মতো, প্রতিনিয়ত বিকাশ হবার সম্ভাবনা থাকে। অথচ সে জীবনকে ধ্বংস করে দিচ্ছে অপশক্তি, রাষ্ট্রের গুটিকয়েক জ্ঞানপাপী, যুদ্ধংদেহী, শক্তিশালী মারণাস্ত্র, হীন স্বার্থে বিশ্বব্যাপী সন্ত্রাসবাদ আর মৌলবাদের হিংস্র থাবা। আমরা এই উন্মাদ কলুষিত জ্ঞানপাপীদের বিরুদ্ধাচারণ করছি, করবো; এই আশায় একদিন মানুষ ফিরে পাবে বাসযোগ্য একটি সুন্দর পৃথিবী; সাম্য-মৈত্রীর বন্ধনে গড়া মাটির স্বর্গ।’  নাট্যধারা নাটক মঞ্চায়নের ক্ষেত্রে মুক্তিযুদ্ধ, অসাম্প্রদায়িক, মানবিক ও প্রগতিশীল মূলবোধকে প্রাধান্য দেয়। পেশাদারী মনোভাব নিয়ে গ্রুপ থিয়েটার আন্দোলনের চেতনায় মঞ্চে এবং পথে গত ২৬ বছর ধরে নাটক করে নাট্যধারা নাট্যামোদী মহলের দৃষ্টি আকর্ষন করতে সক্ষম হয়েছে। নাট্যধারার কর্মীরা যেমন প্রাণবান, তেমনি সংস্কৃতিবান। মুক্তিযুদ্ধত্তোর সংস্কৃতি চর্চার প্রধান যে শাখা আমাদের মঞ্চনাটক, সেই মঞ্চ নাটকের আরো পত্রে-পুষ্পে পল্লবিত করাই নাট্যধারা’র উদ্দেশ্য।

আজকের পত্রিকা/এসএমএস