কবি হেনরি স্বপনের মুক্তির দাবিতে মানববন্ধন।

বরিশালে ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনের মামলায় কবি হেনরী স্বপনকে গ্রেপ্তারের প্রতিবাদে এবং অবিলম্বে তার নিঃশর্ত মুক্তির দাবিতে মানববন্ধন ও সমাবেশ এবং বিক্ষোভ মিছিল অনুষ্ঠিত হয়েছে।

১৪ মে মঙ্গলবার রাতে বরিশাল সাংবাদিক ইউনিয়নের একাংশের উদ্যোগে এই কর্মসূচি অনুষ্ঠিত হয়।

বরিশাল নগরীর সদর রোডের অশ্বিনী কুমার হলের সামনে আয়োজিত মানববন্ধন ও সমাবেশে সভাপতিত্ব করেন বরিশাল সাংবাদিক ইউনিয়নের একাংশের সভাপতি পুলক চ্যাটার্জী।

মানববন্ধন ও সমাবেশে সংহতি প্রকাশ করে বক্তব্য রাখেন সংগঠনের সাধারণ সম্পাদক স্বপন খন্দকার, বরিশাল সাংস্কৃতিক সংগঠন সমন্বয় পরিষদের সভাপতি কাজল ঘোষ, উন্নয়ন সংগঠক রহিমা সুলতানা কাজল, শুভঙ্কর চক্রবর্তী এবং নজরুল বিশ্বাস প্রমুখ।

বক্তারা কবি হেনরী স্বপনকে গ্রেফতারের ঘটনায় তীব্র নিন্দা এবং অবিলম্বে তার মুক্তির দাবি জানান। তা না হলে কঠোর আন্দোলনের হুঁশিয়ারি দেন বক্তারা।

মানববন্ধন ও সমাবেশ থেকে বুধবার বিকেলে বরিশাল মেট্রোপলিটন পুলিশ কমিশানরের আহ্বান করা মতবিনিময় সভা বর্জনের ঘোষণা দেন বরিশাল সাংবাদিক ইউনিয়নের একাংশের নেতারা।

মানববন্ধন ও সমাবেশ শেষে একই দাবিতে নগরীতে বিক্ষোভ মিছিল করেন তারা।

এর আগে ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে দায়ের হওয়া মামলায় কবি ব্লগার হেনরী স্বপনকে মঙ্গলবার নগরীর চৌমাথা এলাকার খ্রিষ্টান কলোনির গোলপুকুরস্থ নিজ বাসা থেকে গ্রেপ্তার করে পুলিশ। পরে তাকে মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে পাঠালে বিচারক শামীম আহমেদ হেনরী স্বপনকে কারাগারে পাঠানোর নির্দেশ দেন।

সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে ধর্মীয় অনুভূতিতে আঘাত হানার অভিযোগে ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে হেনরী স্বপনসহ তিনজনের বিরুদ্ধে সোমবার দুপুরে মামলা দায়ের করেন বরিশাল ক্যাথলিক চার্চের ধর্ম যাজক লাকাভালিয়ের গোমেজ। মামলার অপর দুই আসামি হলেন- নগরীর সার্কুলার রোডের খ্রিষ্টান সম্প্রদায়ের আলফ্রেড সরকার এবং তার ভাই জুয়েল সরকার।’