ওসি লোকমানরে বিদায় বরণ

লক্ষ্মীপুর মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোহাম্মদ লোকমান হোসেনের বদলীজনিত বিদায়ী সংবর্ধনা ও সম্মাননা প্রদান করা হয়েছে। তার বিদায়ে অশ্রুসিক্ত হয়ে পড়েছে সাধারণ মানুষ। একই সাথে নব যোগদানকারি অফিসার ইনচার্জ (ওসি) এ কে এম আজিজুর রহমান মিয়াকে বরণ করা হয়েছে।

১৬ জুন রবিবার রাতে শহরের রোজ গার্ডেন চাইনিজ রেষ্টুরেন্টে এ অনুষ্ঠানের আয়োজন করে সদর উপজেলা কমিউনিটি পুলিশিং সেল। এতে সভাপতিত্ব করেন সদর থানার ওসি তদন্ত মোঃ মোসলেহ উদ্দিন।

জেলা কমিউনিটি পুলিশিং সেল এর সাধারণ সম্পাদক জাকির হোসেন ভূঁইয়া আজাদের পরিচালনায় প্রধান অতিথি ছিলেন অতিরিক্ত পুলিশ সুপার রিয়াজুল কবির।

বিশেষ অতিথি ছিলেন সদর উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান এ কে এম সালাহ উদ্দিন টিপু, জেলা আইনজিবি সমিতির সভাপতি এ্যাড. হুমায়ুন কবির, জজ কোটের পিপি এ্যাড. জসিম উদ্দিন, কমলনগর উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান মেজবাহ উদ্দিন বাপ্পী, আইনজীবি সমিতির সাধারণ সম্পাদক এ্যাড. হাবিবুর রহমান, জেলা কমিউনিটি পুলিশিং এর সভাপতি সৈয়দ জিয়াউল হুদা আফলু, পৌর আওয়ামীলীগের সভাপতি ইসমাইল হোসেন চৌধুরী, সদর থানা কমিউনিটি পুলিশিং এর সভাপতি শংকর মজুমদার, বীর মুক্তিযোদ্ধা জয়নাল আবেদীন, ট্রাফিক ইন্সপেক্টর মামুন আল আমিন, কোর্ট ইন্সপেক্টর শহিদ উল্যাহ পিপিএম, সাধারণ সম্পাদক সৈয়দ এহতেশাম হায়দার বাপ্পী, জেলা সিএনজি মালিক সমিতির সভাপতি সেলিম রেজা মাহমুদ, সাধারণ সম্পাদক দেলোয়ার হোসেন ভূ্ইঁয়া নিশাদ, আওয়ামীলীগ নেতা আমজাদ মাষ্টার প্রমুখ।

এসময় উপজেলার বিভিন্ন ইউপি চেয়ারম্যান, রাজনৈতিক, সুশিল সমাজ, সাংবাদিক এবং বিভিন্ন স্তরের ব্যক্তিবর্গ উপস্থিত ছিলেন।

বক্তারা বিদায়ী ওসি মোহাম্মদ লোকমান হোসেনের মডেল থানায় দায়িত্বকালে বিভিন্ন উন্নয়নমূলক কর্মকান্ড, থানা এলাকার আইনশৃঙ্খলা পরিস্থিতি উন্নয়ন, একটি আধুনিক থানা পরিবেশ সৃষ্টি, ডাকাত নির্মূলে অবদান, মাদক প্রতিরোধসহ বিভিন্ন কর্মকান্ডে বিশেষ অবদান রাখার জন্য ভুয়সী প্রশংসা করেন। তিনিও লক্ষ্মীপুরের ৭ বছর কর্মজীবনে জেলাবাসীর সহযোগীতার জন্য কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করেন।

সেই সাথে নবাগত অফিসার ইনচার্জ এ কে এম আজিজুর রহমান মিয়াকে স্বাগত জানিয়ে তার কাছে থানা এলাকার আইনশৃঙ্খলা রক্ষা, মাদক প্রতিরোধসহ বিভিন্ন ধরণের সহযোগীতা কামনা করেন।

পরে সদ্য বিদায়ী ওসি মোহাম্মদ লোকমান হোসেনকে ক্রেস্ট দিয়ে সম্মাননা প্রদান করেন বিভিন্ন সংগঠনের নেতৃবৃন্দ।

মোঃ সোহেল রানা/লক্ষ্মীপুর