রিকশা চালক জহুরুল

গত ১ অক্টোবর মান্না দে’র ‘কফি হাউজের সেই আড্ডাটা’ গানটি গেয়ে রাতারাতি সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে ভাইরাল হয়ে যান জহুরুল। তার গানে মুগ্ধ হয় গোটা দেশের মানুষ।

সেদিনের গানটি ভাইরাল হওয়ার পর রাতারাতি বদলে গেছে তার জীবন। এখন আর রিকশা নিয়ে বের হতে হয় না জহুরুলকে। থাকেন না হাজারীবাগের বটতলার বালুর মাঠের সেই এলাহী গ্যারেজেও। কারণ তিনি বেসরকারি একটি কোম্পানিতে চাকরি পেয়েছেন।

সম্প্রতি বাংলাদেশ চায়না পাওয়ার কোম্পানি (প্রা:) লিমিটেডে অফিস সহকারি পদে যোগ দিয়েছেন তিনি। জানতে চাইলে জহুরুল গণমাধ্যমকে বলেন, আমাকে সিকিউরিটি গার্ড পোস্টে নিয়োগ দেওয়া হয়েছে। কিন্তু স্যাররা আমাকে অফিসের কাজই করাচ্ছেন। ভাল লাগছে অনেক। একটা অন্যরকম জীবন পেয়েছি। দিন হিসেবে এখানে আমাকে টাকা দেওয়া হবে। যার পরিমাণটাও ভালো।

তিনি বলেন, কারওয়ান বাজারের ইউটিসি ভবনে আমার অফিস। আমার ছুটি হয় সন্ধ্যা ছটায়। সামনের সপ্তাহ থেকে গানের ক্লাসে যাব। এক স্যার ঠিক করে দিয়েছেন একজন ওস্তাদের কাছে গান শুরু করব।

নতুন অফিসের সবাই কি আপনার গানের কথা জানেন? এমন প্রশ্নের জবাবে জহুরুল বলেন, হ্যাঁ -এই গানের কারণেই তো আমি এখানে চাকরি পেয়েছি। অফিসের স্যাররা অবসরে গান শুনতে চান আমার কাছে।

জহিরুল বলেন, আমার এলাকার (সিরাজগঞ্জের) এক বড় ভাই এই চাকরিটা দিয়েছেন। আমি যেন গানের সুযো্গ পাই বা গান চালিয়ে নিতে পারি সেজন্য অনেকেই সহযোগিতা করতে চেয়েছেন। নিজেকে খুব ভাগ্যবান বলে মনে হচ্ছে।