উদ্ভাবনী প্রযুক্তির মিশেলে স্মার্টফোন ডিসপ্লেতে বড় পরিবর্তন আনতে কাজ শুরু করেছে বিশ্বের শীর্ষস্থানীয় স্মার্টফোন নির্মাতা প্রতিষ্ঠান অপো। এ লক্ষ্যে ভিডিও ও মোশন প্রসেসিং সলিশউন প্রদানকারী প্রতিষ্ঠান পিক্সেলওয়ার্কসের সাথে চুক্তিবদ্ধ হয়েছে প্রতিষ্ঠানটি। চুক্তির আওতায় অপো স্মার্টফোনের জন্য পিক্সেলওয়ার্কস তাদের সর্বাধুনিক প্রযুক্তির ভিজুয়াল প্রসেসর এবং সফটওয়্যার সলিউশনস সমৃদ্ধ ডিসপ্লে সিস্টেম তৈরি করবে। এর মাধ্যমে স্মার্টফোনে উচ্চমাত্রার রিফ্রেশ রেট সমৃদ্ধ ডিসপ্লে যুক্ত করা সম্ভব হবে যা ডিসপ্লের মোশন অ্যাপিয়ারেন্স বাড়ানোর পাশাপাশি কালার ডেপথ এবং ডিসপ্লে ক্লারিটি বৃদ্ধি করবে।

বিশ্বের বিভিন্ন অঞ্চলে বিশেষ করে এশিয়ার মোবাইল অপারেটরগুলো ফাইভজি প্রযুক্তিতে বড় বিনিয়োগে যাচ্ছে। ২০২৫ সালের মধ্যে বিনিয়োগের পরিমাণ ৩৭০ বিলিয়ন ডলার ছাড়িয়ে যেতে পারে। গ্রাহক পর্যায়ে ফাইভজি প্রযুক্তির বিভিন্ন সেবা পৌঁছে দেওয়ার ক্ষেত্রে স্মার্টফোন বড় ভূমিকা পালন করবে। আর এক্ষেত্রে স্মার্টফোনের ডিসপ্লের গুরুত্বও শীর্ষে। কারণ হিসেবে বলা হচ্ছে, ফাইভজির কল্যাণে প্রিমিয়াম ভিডিও এবং হাই-কোয়ালিটি গেমিং আরও সহজলভ্য হবে। ফলে স্মার্টফোনের ভিজুয়াল কোয়ালিটি নিয়ে গ্রাহকদের প্রত্যাশাও বাড়বে বহুগুনে।

গ্রাহকদের এই প্রত্যাশা পূরণের লক্ষ্যে নিয়েই মূলত কাজ শুরু করেছে অপো। উন্নতমানের ডিসপ্লে, ভিজুয়াল প্রসেসিং, ইন্টিগ্রেশন ও টেকনিক্যাল সাপোর্ট, ক্লাউড পার্টনারদের সাথে কনটেন্ট অপটিমাইজেশন- এ সবই থাকছে অপো এবং পিক্সেলওয়ার্কসের চুক্তির আওতায়।

এ বিষয়ে অপোর সাপ্লাই চেইন বিভাগের ভাইস প্রেসিডেন্ট জেমস ওয়াং বলেন, “পিক্সেলওয়ার্কসের সাথে কাজ করতে পেরে আমরা আনন্দিত কারণ স্মার্টফোন ডিসপ্লে প্রযুক্তিতে বড় পরিবর্তন আনার মাধ্যমে অপো মোবাইল বিশ্বে সাড়া ফেলতে চায়। এর ফলে স্মার্টফোনের ভিজুয়াল কোয়ালিটি নিয়ে গ্রাহকদের ধারণাই পাল্টে যাবে।”

অপো এবং পিক্সেলওয়ার্কসের যৌথ উদ্ভাবন সমৃদ্ধ ডিসপ্লে সমৃদ্ধ প্রথম স্মার্টফোন চলতি বছরের প্রথমার্ধে উন্মুক্ত করা হতে পারে।