ঈদ উপলক্ষে সবচেয়ে বেশি বাহন চলে মানিকগঞ্জ দিয়ে। ছবি:সংগৃহীত

আসন্ন পবিত্র ঈদুল ফিতর উপলক্ষে যাত্রীদের নিরাপদ যাতায়াত নিশ্চিত করতে প্রস্তুুতি গ্রহণ করেছে মানিকগঞ্জ জেলা প্রশাসন। ঈদে বাড়ি ফেরা নিয়ে ঢাকা-আরিচা মহাসড়ক এবং পাটুরিয়া-দৌলতদিয়া ও আরিচা-কাজিরহাট নৌরুটে যাত্রীদের যাতে কোন রকম ভোগান্তিতে পড়তে না হয় সে জন্য নেয়া হয়েছে নানা পদক্ষেপ।

এ বিষয়ে জেলা প্রশাসক এসএম ফেরদৌসের সভাপতিত্বে উপজেলা প্রশাসন ও সংশ্লিষ্ট বিভাগের কর্মকর্তা-কর্মচারীদের সমন্বয়ে জেলা প্রশাসনের সম্মেলন কক্ষে গত শনিবার এক জরুরি সভা অনুষ্ঠিত হয়। এতে মানিকগঞ্জ সড়ক বিভাগ, ফেরি বিভাগের বিআইডব্লিউটিসি, বিআইডব্লিউটিএ, স্বাস্থ্য বিভাগ,পল্লী বিদ্যুৎ সমিতি, পুলিশ, ফায়ার সার্ভিস, লঞ্চ, স্পিডবোট ও বাস-ট্রাক মালিক সমিতির নের্তৃবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।

জেলা প্রশাসকের স্বাক্ষরিত এক পত্রে জানা গেছে, গত ৯ মে পাটুরিয়া ঘাটে সওজ বিভাগের ডাকবাংলোয় অনুষ্ঠিত সভায় যাত্রীদের নিরাপদ যাতায়াতে নানা ধরনের ৩১টি সিদ্ধান্ত গ্রহণ করা হয়েছে। এর মধ্যে ঈদুল ফিতরে যাত্রীসাধারণ ও যানবাহন পারাপারে সংশ্লিষ্ট বিভাগের কর্মকর্তা-কর্মচারীরা সজাগ থাকবেন। পাটুরিয়া-দৌলতদিয়া নৌরুটে ঈদের আগে-পরে ১০দিন ২১টি ফেরি চলাচল করবে। তবে এ সময় ফেরিতে ট্রাক পারাপার বন্ধ থাকবে।

আরিচা-কাজিরহাট ও পাটুরিয়া-দৌলতদিয়া নৌরুটে প্রয়োজনীয় সংখ্যক লঞ্চ ও স্পিডবোট চলাচল করবে। যাত্রীদের সুবিধার্থে পয়ঃনিস্কাশনের জন্য পাটুরিয়া ঘাটসহ রাস্তার ধারে ২০টি অস্থায়ী শৌচাগার নির্মাণ,টিউবওয়েল স্থাপন ও তা পরিচর্যার ব্যবস্থা থাকবে। প্রাথমিক চিকিৎসার জন্য স্বাস্থ্য ক্যাম্প স্থাপন, ডাক্তার ও সহকারী নিয়োগ, ঔষুধ সরবরাহসহ সার্বক্ষণিক এ্যাম্বুল্যান্স প্রস্তুুত থাকবে।

চাঁদাবাজ-পকেটমার, অজ্ঞান পার্টি,যানবাহনে অতিরিক্ত ভাড়া আদায় রোধে পুলিশসহ আইন প্রয়োগকারী সংস্থা তাৎক্ষণিক ব্যবস্থা নেবে। সড়ক মহাসড়কে দুর্ঘটনার অন্যতম কারণ নসিমন, করিমন, ভটভটি, ইজিবাইক, রিক্সা-ভ্যান মাহেন্দ্র ইত্যাদি চলাচল বন্ধ থাকবে।

এছাড়া লঞ্চ-নৌকায় অতিরিক্ত যাত্রী বহনের বিরুদ্ধে কঠোর মনিটরিং ও আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে। সার্বিক পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে অতিরিক্ত জেলা ম্যাজিস্ট্রেট, পুলিশ সুপার, ইউএনও, ট্রাফিক ইন্সপেক্টর, বিভাগীয় নির্বাহী প্রকৌশলী, উপ-পরিচালক, সিভিল সার্জনসহ সংশ্লিষ্ট বিভাগীয় কর্মকর্তারা মনিটরিং ও দায়ীত্ব পালনে নির্দেশ প্রদান ও মোবাইল কোর্ট পরিচালনা করবেন।

পাটুরিয়া ঘাটে অবস্থিত ‘মোহনায় জেলা প্রশাসনের নিয়ন্ত্রণ কক্ষ সার্বক্ষণিক খোলা থাকবে। ঈদে ঘরমুখী যাত্রী সাধারণ এ কন্ট্রোল রুম থেকে নানা ধরনের সুবিধা নিতে পারবেন বলে জানা গেছে।

আজকের পত্রিকা/শাহজাহান বিশ্বাস, মানিকগঞ্জ/রাফাত/এমএইচএস