আসন্ন ঈদুল আজহার আগে পাঁচ দিন এবং ঈদের পরে তিন দিন ঈদের দিনসহ এই মোট ৯ দিন সব ধরনের গণপরিবহন বন্ধ থাকবে।

এই নির্দেশনা সংক্রান্ত একটি চিঠি মন্ত্রিপরিষদ বিভাগ থেকে সংশ্লিষ্ট মন্ত্রণালয় ও বিভাগে পাঠানো হয়েছে।

মন্ত্রিপরিষদ বিভাগের নির্দেশনা অনুযায়ী কভিড-১৯ বিস্তার প্রতিরোধের লক্ষ্যে আসন্ন ঈদের সময় জনগণের চলাচল সীমাবদ্ধ করতে ঈদুল আজহার ৫ দিন আগে থেকে ও ঈদের তিনদিন পর পর্যন্ত গণপরিবহন বন্ধ রাখার বিষয়ে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নিতে বাংলাদেশ সড়ক পরিবহন কর্তৃপক্ষের (বিআরটিএ) চেয়ারম্যানের কাছে সড়ক পরিবহন ও মহাসড়ক বিভাগ থেকে চিঠি পাঠানো হয়েছে।

আজ বুধবার (১৫ জুলাই) সচিবালয়ে ঈদুল আজহা উপলক্ষে লঞ্চ, ফেরি, স্টিমার চলাচল ও যাত্রীদের নিরাপত্তা নিশ্চিতকরণসহ কর্মপন্থা নির্ধারণ সংক্রান্ত বৈঠকের শুরুতে নৌপরিবহন প্রতিমন্ত্রী খালিদ মাহমুদ চৌধুরী বলেন, ঈদের ৫ দিন আগে থেকে এবং ঈদের পরে তিনদিন গণপরিবহন বন্ধ রাখার বিষয়ে একটি প্রজ্ঞাপন আমরা পেয়েছি। মিটিং করে সেই আলোকেই আমরা পদক্ষেপ গ্রহণ করব।

অর্থাৎ যারা ঈদে বাড়ি যেতে চান তাদের ঈদের পাঁচ দিন আগেই যেতে হবে। আর যারা আসতে চান তাদের ঈদের তিন দিন পরে থেকে আসার প্রস্তুতি নিতে হবে।

এদিকে ঈদের আগের ৫ দিন ও পরের ৩ দিন নিত্যপ্রয়োজনীয় পণ্য ও কোরবানির পশুর ট্রাক বাদে সাধারণ ট্রাক ও কাভার্ডভ্যান ফেরিতে চলাচল বন্ধ থাকবে। নৌপরিবহন মন্ত্রণালয়ে ঈদ ব্যবস্থাপনা বৈঠকে এ সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে।

উল্লেখ্য, আরবি জিলহজ মাসের চাঁদ দেখা সাপেক্ষে আগামী ৩১ জুলাই অথবা ১ আগস্ট দেশে কোরবানির ঈদ উদযাপিত হবে।

  • 144
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
    144
    Shares