চলতি বছরে দ্বিতীয়বারের মত ইরান যাচ্ছেন পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান। উপসাগরীয় অঞ্চলে উত্তেজনা কমানোর চেষ্টায় যুক্তরাষ্ট্র ও সৌদি আরবের অনুরোধে তিনি এ সফরে যাচ্ছেন।

ইমরান খানের কার্যালয় থেকে বলা হয়েছে, উপসাগরীয় অঞ্চলে শান্তি ও নিরাপত্তা জোরদারের অংশ হিসেবে তিনি এ সফর করছেন। সফরকালে তিনি ইরানের সর্বোচ্চ নেতা আয়াতুল্লাহ আল খামেনি এবং প্রেসিডেন্ট হাসান রুহানির সঙ্গে বৈঠক করবেন।
গত সপ্তাহে এক প্রেস ব্রিফিংয়ে পাকিস্তানের পররাষ্ট্র দপ্তরের একজন মুখপাত্র বিস্তারিত উল্লেখ না করে বলেন, ইমরান খান সৌদি আরব সফর করবেন বলেও ধারণা করা হচ্ছে।

উল্লেখ্য, সৌদি আরবের সঙ্গে পাকিস্তানের সুদৃঢ় সম্পর্ক রয়েছে। দেশটিতে পাকিস্তানের ২৫ লাখের বেশি লোক কাজ করছে। এছাড়া ইরানের সাথেও পাকিস্তানের যথেষ্ট সুসম্পর্ক রয়েছে।