নদীতে পড়ে যাওয়া ট্রেনের বগি।

মৌলভীবাজারের কুলাউড়ায় ট্রেন দুর্ঘটনায় নিহতদের মধ্যে দুজন সিলেট নার্সিং কলেজের ছাত্রী। তাদের নাম ইয়াসমিন ইভা (২০) ও সানজিদা (২০)। তারা দুজনই দ্বিতীয় বর্ষের ছাত্রী। ঢাকায় একটি প্রশিক্ষণে অংশ নিতে যাচ্ছিলেন ইভা-সানজিদা।

সিলেট দক্ষিণ সুরমার আব্দুল্লাহপুর গ্রামের বাসিন্দা ইয়াসমিন ইভা। তার বাবার নাম আব্দুল বারী। অন্যদিকে সানজিদার বাড়ি বাগেরহাট জেলায়। ইভা ও সানজিদা খুব ভালো বান্ধবী ছিলো বলে জানা গেছে। তাদের মরদেহ সিলেট ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের মর্গে রাখা হয়েছে।

গতকাল রোববার রাত ১১টা ৫০ মিনিটে কুলাউড়ার বরমচাল লেভেলক্রসিং এলাকায় সেতু ভেঙে খালে ছিটকে পড়ে সিলেট থেকে ঢাকাগামী উপবন এক্সপ্রেস ট্রেনের তিনটি বগি। এর মধ্যে একটি বগি পানিতে পড়েছে। এতে শেষ খবর পাওয়া পর্যন্ত সাতজনের লাশ উদ্ধার করেছে ফায়ার সার্ভিস। আহত হয়েছে দুই শতাধিক যাত্রী। মৃতের সংখ্যা আরও বাড়তে পারে বলে আশঙ্কা করা হচ্ছে।

দুর্ঘটনার ফলে সিলেটের সঙ্গে সারাদেশের রেল যোগাযোগ বিচ্ছিন্ন হয়ে পড়েছে। ফায়ার সার্ভিসের ১৩টি ইউনিট ঘটনাস্থলে পৌঁছে উদ্ধারকাজ চালাচ্ছে। স্থানীয় জনতাও উদ্ধারকাজে যোগ দিয়েছে।

আজকের পত্রিকা/এমএআরএস