ইসলামি বিশ্ববিদ্যালয়

ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয় মাস্টার্স পরীক্ষা শেষ হওয়ার ১৫ দিনের মধ্যে সংশ্লিষ্ট শিক্ষার্থীকে হল ত্যাগ করতে হবে। কোনোক্রমেই তারা হলে অবস্থান করতে পারবে না। শনিবার বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রভোস্ট কমিটির সভায় এ সিদ্ধান্ত হয়েছে। বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক ড. রাশিদ আসকারীর সভাপতিত্বে এতে বিভিন্ন হলের প্রভোস্ট অংশ নেন।

রেজিস্ট্রার অফিস সূত্রে, হলে শুধুমাত্র আবাসিক শিক্ষার্থীদের অবস্থান নিশ্চিত ও নির্দিষ্ট নীতিমালার আলোকে আবাসিকতা প্রদান করবে স্ব-স্ব হল কর্তৃপক্ষ। আগামী ১৯ অক্টোবরের মধ্যে প্রতিটি হলের আবাসিক শিক্ষার্থীদের নামের তালিকা প্রস্তুত করে প্রশাসন বরাবর প্রেরণ করবে স্ব-স্ব হল কর্তৃপক্ষ। রাত ১২ টার পর ছাত্রদের হলের মেইন গেট বন্ধ এবং ছাত্রী হলে পূর্বের নিয়ম বলবৎ থাকার সিদ্ধান্ত হয়েছে। প্রক্টরের নেতৃত্বে ছাত্র-উপদেষ্টা ও হল প্রভোস্টদের সমন্বয়ে হলসমূহ সার্বক্ষণিক তদারকি করবে একটি মনিটরিং সেল। হলের অভ্যন্তরে কোন শিক্ষার্থী অন্য শিক্ষার্থীর দ্বারা নিগৃহীত হচ্ছে কিনা তার সার্বক্ষণিক তদারকি করবে এ মনিটরিং সেল। মাননীয় প্রধানমন্ত্রির নির্দেশে যেকোন সময় যেকোন হল তল্লাশির ব্যবস্থা থাকবে।

সভায় বিশ^বিদ্যালয়ের উপ-উপাচার্য অধ্যাপক ড. শাহিনুর রহমান, কোষাধ্যক্ষ অধ্যাপক ড. সেলিম তোহা, ছাত্র-উপদেষ্টা ও প্রক্টরের সাময়িক দ্বায়িত্বে থাকা অধ্যাপক ড. পরেশ চন্দ্র বর্ম্মণ, প্রভোস্ট কাউন্সিলের সভাপতি অধ্যাপক ড. আকরাম হুসাইন মজুমদারসহ অন্যান্য প্রভোস্টগন উপস্থিত ছিলেন। সভায় বুয়েটের মেধাবী শিক্ষার্থী আবরারের রুহের মাগফিরাত কামনা করা হয়।

এসময় আবরার হত্যায় জড়িতদের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি দাবি করা হয়।

এইচকেজে/ইবি